নাগরিকত্ব আইন: ঝাড়খন্ডে বিজেপির বিদায়ী সুর

0
386

ভারতের ঝাড়খন্ড রাজ্যের নির্বাচনে বিজেপিকে হটিয়ে কংগ্রেস-ঝাড়খন্ড মুক্তি মোর্চা (জেএমএম) জোট জয় পেতে পারে বলে আভাস দেওয়া হয়েছে বিভিন্ন সংস্থার বুথফেরত জরিপে। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের জেরে ক্ষমতাসীন দলের এমন পরাজয় বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

এনডিটিভি অনলাইনের খবরে বলা হয়েছে, গতকাল শুক্রবার বুথফেরত জরিপে আভাস দেওয়া হয়েছে, কংগ্রেস-ঝাড়খন্ড মুক্তি মোর্চা (জেএমএম) জোট ঝাড়খন্ড থেকে রঘুবর দাসের বিজেপি সরকারকে হটিয়ে ক্ষমতায় আসতে পারে। দুটি বুথফেরত জরিপে বলা হয়েছে, জেএমএম-কংগ্রেস জোট ৪১টি আসন পেয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে পারে। এছাড়া তিনটি বুথফেরত জরিপে বলা হয়েছে, এই জোট পেতে পারে ৪০টি আসন। আর বিজেপি পেতে পারে ২৯টি আসন।

আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর দাসের নেতৃত্বে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে আদিবাসী ও জনজাতি প্রধান ঝাড়খন্ডে ক্ষোভের ইঙ্গিত ভোটের আগের সমীক্ষাগুলিতেই মিলেছিল। রঘুবর যে আদিবাসী বা জনজাতির ছিলেন না, সে বিষয়টিও বিজেপির বিরুদ্ধে গিয়েছে বলে পূর্বাভাস মিলেছে। গত বিধানসভায় বিজেপি ৩৭টি আসন পেলেও অল ঝাড়খন্ড স্টুডেন্টস ইউনিয়ন (আজসু)-এর সঙ্গে জোট বেঁধে সরকার গঠন করে। তবে এবার আজসু আলাদা ভাবে নির্বাচনে লড়ায় বিরোধীদের সুবিধা হয়েছে। ২ থেকে ৫টি আসন পেলেও বিজেপির কিছু ভোট তারা কেটেছে বলে সমীক্ষায় ইঙ্গিত মিলেছে। এবিপি-সি ভোটারের সমীক্ষায় কংগ্রেস-জেএমএম জোট ৩৫ ও বিজেপি জোট ৩২টি আসন পাবে বলে আভাস দেওয়া হলেও ত্রিশঙ্কু বিধানসভার কথা বলা হয়েছে।

আবার ইন্ডিয়া টুডে-অ্যাক্সিস-এর সমীক্ষায় বলা হয়েছে, ৩৮-৫০টি আসন পেতে পারে কংগ্রেস-জেএমএম জোট। ২২ থেকে ৩২টি আসন পেয়ে বিরোধী বেঞ্চে বসতে হতে পারে বিজেপিকে।

এনডিটিভি-র সমীক্ষায় ৪০টি আসন দেওয়া হয়েছে কংগ্রেস জোটকে। বিজেপি ২৯টি আসন পেতে পারে বলে আভাস দেওয়া হয়েছে। ঝাড়খন্ডে পরিচিত কশিশ নিউজের সমীক্ষাতেও এগিয়ে রাখা হয়েছে কংগ্রেস জোটকে। তারা ৩৭ থেকে ৪৩টি এবং বিজেপি ২৫ থেকে ৩০টি আসন পেতে পারে বলে ফলাফলে উঠে এসেছে।

পাঁচ ধাপে ৩০ নভেম্বর ঝাড়খন্ডে নির্বাচন শুরু হয়। গতকাল শুক্রবার সেখানে শেষ ধাপের ভোট হয়। নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হবে ২৩ ডিসেম্বর।

মতামত

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে