দুগ্ধপোষ্য শিশুকে ফেলে গেলেন মা

0
104

নিজস্ব প্রতিবেদক:: ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে টার্মিনালের ভেতরে ৮ মাসের এক দুগ্ধপোষ্য মেয়ে শিশুকে ফেলে গেছেন তার মা। শুক্রবার (২ এপ্রিল) সকালে ফেলে যাওয়া শিশুটিকে বিমানবন্দরে দায়িত্বরত আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) এক সদস্য উদ্ধার করেন। পরে এপিবিএনের নারী সদস্যরা দুধ এনে খাওয়ালে শিশুটির কান্না থামে।

সিসি ক্যামেরার ফুটেজ অনুসন্ধান করে পুলিশ জানিয়েছে, সৌদি আরব থেকে আসা এক নারী যাত্রী শিশুটিকে বিমানবন্দরে ফেলে গেছেন। শিশুটি এখন পুলিশ হেফাজতে আছে। শিশুটির পরিবারের অনুসন্ধান করছে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন।

এপিবিএনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) দিবাগত রাত ২টার দিকে বিমানবন্দরের অ্যারাইভাল (আগমন) টার্মিনালে সৌদি আরব থেকে এক নারী ঢাকায় আসেন। ফ্লাইট অবতরণের পর তিনি ৫ নম্বর লাগেজ বেল্টের সামনে শিশুটিকে নিয়ে অবস্থান করেন। বাড়ি ফেরার জন্য রাতে গাড়ি পাবেন না বলে তিনি সকাল পর্যন্ত সেখানেই অপেক্ষা করেন। সকাল ৮টার দিকে হঠাৎ শিশুটিকে রেখে লাগেজ নিয়ে তিনি পালিয়ে যান।’

আলমগীর হোসেন আরও বলেন, আমরা শিশুটিকে উদ্ধার করে দুধ খাওয়ার ব্যবস্থা করেছি। এখনও শিশুটি আমাদের হেফাজতে আছে। আমরা চেষ্টা করছি তাকে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিতে। এজন্য প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় ও অন্যান্য সংস্থার সহায়তা নিচ্ছি।

একই ফ্লাইটে আসা আরেক নারী জানিয়েছেন, শিশুটির মা সৌদি আরবে কাজের জন্য গিয়েছিলো। সেখানে এক ব্যক্তির সংগে তার বিয়ে হয়। তাদের ঘরেই এই সন্তানের জন্ম। তবে দেশে ফেরার আগেই তাদের ডিভোর্স হয়ে যায়। সন্তানকে নিয়ে তিনি কোথায় যাবেন তা নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বে ছিলেন। প্লেনে কয়েকবার কান্নাকাটিও করেছেন।

প্রবাসীদের নিয়ে কাজ করা ব্রাক-এর মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের প্রধান শরীফুল হাসান তার ফেসবুক পেজে শিশু উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে লিখেছেন, বিমাননবন্দর আমর্ড পুলিশ (এপিবিএন) তাদের অফিসে নিয়ে শিশুটির নিরাপদ আবাসন ও পরবর্তীতে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সহায়তা চেয়ে ব্র্যাকে ফোন করেছে। আমাদের লোকজন এখান বিমানবন্দরে আছে। পুলিশ ও আমরা প্রাথমিকভাবে মনে করছি, সৌদি আরব থেকে ফেরত আসা কোনো মা বাচ্চাটিকে ফেলে যেতে পারেন।’

Print Friendly, PDF & Email

Source link