দিদি গুজরাতিতে চিঠির উত্তর দিয়েছিলেন, ভালো লেগেছিল-মোদী

0
87

কলকাতা, ০৬ এপ্রিল- বাংলা ভাষাকে সম্মান করি বলেই বাংলায় বলি। দিদির তো আমাকে উৎসাহ দেওয়া উচিত।মঙ্গলবার হাওড়া জনসভা থেকে এই ভাষাতেই তৃণমূল নেত্রীর কটাক্ষের জবাব দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন,‘‌আমার উচ্চারণে ত্রুটি থাকবে।তা সত্বেও বাংলায় বাক্য বলি কারণ, বাংলা ভাষাকে আমি সম্মান করি। দিদি, আপনার তো উৎসাহ দেওয়া উচিত।’‌

সম্প্রতি বাংলা ভাষায় উচ্চারণে ত্রুটি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে কটাক্ষ করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী পালটা তৃণমূল নেত্রীকে কটাক্ষ ছুড়ে দিয়ে বলেন,‘‌হারের হতাশায় আমাকে গালি দিচ্ছেন দিদি। বাংলার একোন ছবি তুলে ধরছেন দিদি।’‌ একইসঙ্গে তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী হিসাবে সাংসদ, মুখ্যমন্ত্রীদের জন্মদিনে শুভেচ্ছা দিই।আগে সেই সব চিঠি ইংরাজিতে লেখা হত।প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্বভার নেওয়ার পর মাতৃভাষায় চিঠি লেখার পরম্পরা শুরু হয়েছে। দিদিকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছিলাম।উনি গুজরাতিতে জবাব দিয়েছিলেন।আমার ভালো লেগেছিল। এমন বহুভাষার দেশ বিশ্বের আর কোথাও নেই।’‌

আরও পড়ুন : ‘আমার গায়ে হাত দেয়, গালাগাল করে, জুতা ছুড়ে মারে’

তিনি যে মাতৃভাষার প্রতি শ্রদ্ধাশীল, সেকথা আরো একবার স্মরণ করিয়ে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী এদিন বলেন,‘‌আমি যেখানে যাই, সেখানকার ভাষা বলার চেষ্টা করি। কেরালায় গেলে মালায়লাম বলি, তামিলনাডুতে গেলে তামিল বলি। উচ্চারণে ত্রুটি থাকলেও বলি।দিদির তো তাতে উৎসাহ দেওয়া উচিত।’‌

উল্লেখ্য, এবারে ভোট প্রচারে এসে নরেন্দ্র মোদী হোক বা অমিত শাহ, সকলের মুখেই বক্তৃতার মধ্যে বাংলায় কথা বলার প্রচলন দেখা যাচ্ছে। বিজেপির একাধিক প্রথম সারির নেতার বক্তৃতাতেই ‘‌সোনার বাংলা গড়ব’‌, এই কথা শোনা যাচ্ছে। তবে তা বলতে গিয়ে উচ্চারণে ক্রুটি থেকে যাচ্ছে। এবার এই বাংলায় কথা বলা প্রসঙ্গেই নিজের মনোভাব স্পষ্ট করলেন প্রধানমন্ত্রী।লক্ষ্য একটাই, বাংলা ও বাঙালির হৃদয়কে জিতে নেওয়া।

সূত্র : হিন্দুস্থান টাইমস
এন এ/০৬ এপ্রিল

Source link