তিন পা এবং পুরুষাঙ্গ নিয়ে জন্মালো মেয়ে শিশু!

0
62

হায়দ্রাবাদ, ০৯ এপ্রিল – তিন পা নিয়ে শিশু জন্ম নেয়া খুব একটা বিরল নয়। এর চিকিৎসাও রয়েছে। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে এর সমাধান করা যায়। কিন্তু অন্ধ্রপ্রদেশের পশ্চিম গোদাবরী জেলার চিন্তলপুড়ি মণ্ডলের শেট্টিবরিপলেম গ্রামে যা ঘটেছে তা মোটেও স্বাভাবিক নয়।

সেখানকার মোহন রাও এবং তার স্ত্রী বেঙ্কটেশ্বরাম্মা সম্প্রতি এক কন্যাশিশু বাবা-মা হন। কিন্তু তাদের শিশু দেখতে আর ১০টা শিশুর মতো নয়। তাদের অদ্ভুতদর্শন শিশুকন্যাটিকে নিয়ে রীতিমতো দুশ্চিন্তায় পড়ে যান তারা। শেষ পর্যন্ত তাদের উদ্ধারে এগিয়ে আসে গুন্টুর জেনারেল হসপাতালের চিকিৎসকরা।

জানা গেছে, গত ৪ মার্চ নুজিবিরু এরিয়া হসপাতালে এই শিশুর জন্ম দেন বেঙ্কটেশ্বরাম্মা। শিশুটির কোমরের পেছনের একটি পা, একটি পুরুষাঙ্গ এবং বেশ কিছু শিরার অস্তিত্ব ছিল। সেখানকার ডাক্তারদের পরামর্শে তারা প্রথমে মেয়েকে নিয়ে যান বিজয়ওয়াড়া সরকারি হাসপাতালে।

আরও পড়ুন : হাফ প্যান্ট পরে বিয়ের পিঁড়িতে বসে ভাইরাল বর

পরে সেখানকার ডাক্তারদের পরামর্শে এই দম্পতি গুন্টুর জেনারেল হাসপাতালের ডাক্তারদের দ্বারস্থ হন। পরে হাসপাতালের বিশেষজ্ঞদের চিকিৎসকদের একটি টিম অস্ত্রোপচার করে তৃতীয় পা, পুরুষাঙ্গ এবং শিরাগুলো শরীর থেকে কেটে ফেলে দেন।

ডাক্তাররা বলছেন, চিকিৎসা বিজ্ঞানে এই বিরল রোগের নাম লাম্বার মিলো। এই রোগে আক্রান্তের শরীরে তিনটি বৈষম্যের উপস্থিতি চোখে পড়ে। তাই স্বাভাবিকভাবেই মেয়ের শরীরিক গঠন স্বাভাবিক হওয়ায় আনন্দে আর কৃতজ্ঞতায় আপ্লুত হয়েছে পরিবারটি। বিশেষ করে মা বেঙ্কটেশ্বরাম্মা বার বার ডাক্তারদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

সূত্র: আরটিভি
এন এ/ ০৯ এপ্রিল

Source link