তারেক শামসুর রেহমানের মরদেহ উদ্ধার

0
91

ডেস্ক রিপোর্ট:: উত্তরার নিজ ফ্ল্যাট থেকে শিক্ষক ও কলামিস্ট ড. তারেক শামসুর রেহমানের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

বাসায় তিনি একা ছিলেন। পুলিশ দরজা ভেঙে তার মরদেহ পায়। তার ভবনে থাকা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর ও অঞ্চল বিভাগের অধ্যাপক শফিকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রাজউকের উত্তরা অ্যাপার্টমেন্ট প্রজেক্টের প্রকল্প পরিচালক মো. মোজাফফর আহমেদ জানান, সকালে তারেক শামসুর রহমানের কাজের বুয়া বাসায় যান। বাইরে থেকে কলিংবেল দিলেও তিনি দরজা খোলেননি। পরে বুয়া নিচে সিকিউরিটিকে বিষয়টি জানান। এরপর আশপাশের সবাই ফ্লাটে গিয়ে তাকে ডাকাডাকি করেন। কিন্তু তার সাড়াশব্দ পাওয়া যায়নি।

পরবর্তীতে বেলা ১১টার দিকে তুরাগ থানা পুলিশকে জানানো হয়। পুলিশ ফ্লাটের দরজা ভেঙে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

তারেক শামসুর রহমানের মরদেহটি বাথরুমের সামনে পড়ে ছিল। মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

তুরাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী হাসান জানান, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ বাসার দরজা ভেঙে মরদেহটি উদ্ধার করে। তবে প্রাথমিকভাবে মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি।

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক সদস্য তারেক শামসুর রেহমান জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ও বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন। আন্তর্জাতিক রাজনীতি, আন্তঃরাষ্ট্রীয় সম্পর্ক ও বৈদেশিক নীতি নিয়ে গবেষণামূলক বেশ কয়েকটি গ্রন্থ রয়েছে তাঁর। এছাড়া তুলনামূলক রাজনীতি নিয়েও তার বেশ কয়েকটি গ্রন্থ রয়েছে। অধ্যাপক রেহমান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রি সম্পন্ন করেন। অধ্যাপনার পাশাপাশি ড. রেহমান নিয়মিত কলাম লিখতেন।

তাঁর উল্লেখযোগ্য গ্রন্থগুলোর মধ্যে রয়েছে- ইরাক যুদ্ধ পরবর্তী আন্তর্জাতিক রাজনীতি, গণতন্ত্রের শত্রু-মিত্র, নয়া বিশ্বব্যবস্থা ও আন্তর্জাতিক রাজনীতি, বিশ্ব রাজনীতির চালচিত্র, উপআঞ্চলিক জোট, ট্রানজিট ইস্যু ও গ্যাস রফতানি প্রসঙ্গ, বাংলাদেশ: রাষ্ট্র ও রাজনীতি, বাংলাদেশ: রাজনীতির ২৫ বছর, বাংলাদেশ: রাজনীতির চার দশক, গঙ্গার পানি চুক্তি: প্রেক্ষিত ও সম্ভাবনা, সোভিয়েত-বালাদেশ সম্পর্ক, বিশ্ব রাজনীতির ১০০ বছর ইত্যাদি।

Print Friendly, PDF & Email

Source link