ডেঙ্গু নাকি করোনা পজিটিভ-কীভাবে বুঝবেন?

289


লাইফস্টাইল ডেস্ক

দেশে করোনা সংক্রমণ দিন দিনই রেকর্ড ছাড়াচ্ছে। এরমধ্যেই হু হু করে বাড়ছে ডেঙ্গুর ভয়াবহতা। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। ডেঙ্গু ও করোনার উপসর্গ অনেকটা একইরকম হওয়ায় অনেকেই নিজে বা আপনজনেরা জ্বরে আক্রান্ত হলে সংশয়ে পড়ে যাচ্ছেন।

দুটো রোগেই জ্বর থাকে। তবে কিছু উপায়ে আপনি বাড়িতেই প্রাথমিকভাবে ডেঙ্গু ও করোনাকে আলাদা করতে পারেন।

শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক, ডা. মুহাম্মদ আল আমিন এ বিষয়ে সারাবাংলাকে জানান, ‘দুটো রোগেই উচ্চ তাপমাত্রার জ্বর হয়। তবে করোনায় ফ্লু এর উপসর্গ বেশি থাকে। যেমন, নাক দিয়ে সর্দি বের হওয়া, কাশি, গলাব্যাথা, সর্দি, শ্বাসকষ্ট, গন্ধ না পাওয়া, পেটে ব্যাথা, বমি এবং ডায়রিয়া।’

ডা. আল আমিন বলেন, ‘ডেঙ্গু রোগীদের জ্বরের পাশাপাশি শরীরে প্রচণ্ড ব্যাথা, চোখের পেছনের দিকে ব্যাথা, মাথা ব্যাথা, পেটে ব্যাথা, বমি ইত্যাদি উপসর্গ থাকে। পাশাপাশি শরীরে এক ধরনের র‌্যাশ দেখা দেয়। সেইসঙ্গে শরীরের বিভিন্ন জয়েন্টে ব্যাথা হতে পারে।’

জ্বর হলে এসব উপসর্গ দেখে বাড়িতে প্রাথমিকভাবে ডেঙ্গু ও করোনাকে আলাদা করতে পারেন। তবে অবশ্যই যে রোগের উপসর্গের সঙ্গে মিলে যায় হাসপাতালে গিয়ে তা পরীক্ষা করা ও চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়ার কথা বলেন ডা. আল আমিন। তিনি বলেন, ‘করোনার জন্য এখন সব হাসপাতালের বহির্বিভাগে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট করা হয়। সেখান থেকে সঙ্গে সঙ্গেই ফলাফল পাওয়া যায়। আর আরটিপিসিআর টেস্টে ২ থেকে ৩ দিন সময় লাগে।’

ডেঙ্গুর পরীক্ষার জন্য এই চিকিৎসক জানান, ‘ডেঙ্গু হলে প্রথম পাঁচদিন রোগীর খুব উচ্চ তাপমাত্রার জ্বর থাকে। তাই ডেঙ্গু রোগ সনাক্তের জন্য জ্বর হওয়ার প্রথম পাঁচদিনের মধ্যে আমরা এন্টিজেন টেস্ট করি। কারো ডেঙ্গু হয়ে থাকলে এই টেস্টে প্রথম পাঁচদিনের মধ্যেই সনাক্ত হবে। কারণ এরপর ডেঙ্গু হলেও টেস্টে নেগেটিভ আসবে।’

তবে জ্বর হওয়ার প্রথম পাঁচদিন পর ডেঙ্গু সনাক্তের জন্য অ্যান্টিবডি টেস্ট করতে হবে বলে জানান ডা. আল আমিন।

সারাবাংলা/এসএসএস





Source link