ঝোপের মধ্যে পড়ে ছিল ঢাবি ছাত্রীর বই-ঘড়ি-ইনহেলার

0
447

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ধর্ষণের ঘটনায় রাজধানীর কুর্মিটোলা বাসস্টপসংলগ্ন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দুটি দল। এ সময় ভিকটিম ও আসামির ব্যবহৃত জিনিসপত্রসহ বেশ কিছু আলামত সংগ্রহ করা হয়।

ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ব্যাগ, হাতঘড়ি, কলম ও একটি প্যান্ট। এ ছাড়াও পাওয়া গেছে ওই ছাত্রীর ব্যবহৃত বই ও ইনহেলার।

আজ সোমবার দুপুরে আলামত সংগ্রহে ঘটনাস্থলে যান র‌্যাব ও গোয়েন্দা পুলিশের দুটি দল। কুর্মিটোলা গলফ ক্লাবের সামনের জঙ্গলের মধ্যে এই ঘটনা ঘটে বলে প্রাথমিকভাবে ঘটনাস্থল শনাক্ত করেছেন তারা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক র‍্যাবের এক সদস্য বলেন, ‘ঝোপের মধ্য থেকে ইউনিভার্সিটির বই, চাবির রিং, ইনহেলার, ঘড়িসহ বেশ কিছু আলামত আমরা পেয়েছি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি এটিই ঘটনাস্থল। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিষয়টি জানানো হয়েছে। তারা আসলে বিস্তারিত জানানো হবে।’

এদিকে তদন্ত শেষে ঘটনার বিস্তারিত জানানো সম্ভব হবে বলে জানিয়েছে র‌্যাব ও গোয়েন্দা পুলিশের দল।

এর আগে গতকাল রোববার সন্ধ্যায় কুর্মিটোলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস থেকে নেমে যাওয়ার পর তাকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ করেন ওই ছাত্রী।

জানা গেছে, গতকাল বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে শেওড়া যাওয়ার উদ্দেশে ঢাবির বাসে ওঠেন ওই শিক্ষার্থী। সন্ধ্যা ৭টার দিকে শেওড়ার বিপরীত পাশে কুর্মিটোলায় বাস থেকে নামেন তিনি। সেখানে অজ্ঞাত ব্যক্তি মুখ চেপে তাকে পাশের একটি স্থানে নিয়ে অজ্ঞান করে ধর্ষণ করে।

রাত ১০টার দিকে জ্ঞান ফিরলে তিনি নিজেকে নির্জন স্থানে আবিষ্কার করেন। সেখান থেকে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় গন্তব্যে পৌঁছান ওই ছাত্রী। পরে রাত ১২টার দিকে তাকে ঢামেক হাসপাতালের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করান তার সহপাঠীরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে