জ্ঞান ফেরেনি মুন্নীর, ডা: তপন-নার্স কুহেলিকাকে জেলে পাঠানোর নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী মরিয়ম সুলতানা মুন্নীকে (২০) ভুল ইনজেকশন পুশ করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় দুইজন নার্স ও একজন ডাক্তারের জামিন বাতিল করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

রবিবার দুপরে ড. তপন কুমার মণ্ডল এবং নার্স কুহেলিকা গোপালগঞ্জ সদর আমলী আদালতের বিচারক মো. হুমায়ুন কবীরের আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করেন। আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আগে গোপালগঞ্জ সদর থানায় শিক্ষার্থীর চাচা জাকির হোসেন বাদি হয়ে ড. তপন কুমার মণ্ডল, নার্স শাহনাজ পারভিন ও কুহেলিকাকে আসামি করে হত্যা চেষ্টার মামলা করেছিলেন। তাদের গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হলে অভিযুক্তরা হাইকোর্ট থেকে ৮ সপ্তাহের জন্য জামিন নেন।

উল্লেখ্য, গত ২০ মে গোপালগঞ্জের জেনারেল হাসপাতালে নার্সের ভুল ইনজেকশনের কারণে অজ্ঞান হয়ে পড়েন ওই শিক্ষার্থী। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি করা হয়। এদিকে দীর্ঘদিন পার হয়ে গেলেও মুন্নীর জ্ঞান না ফেরায় উদ্বিগ্ন তার পরিবার।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.