চট্টগ্রামে নালায় পড়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী নিখোঁজ

96


স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম নগরীর আগ্রাবাদে নালায় পড়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া এক ছাত্রী দুই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে নিখোঁজ রয়েছেন। ফায়ার সার্ভিসের টিম নিখোঁজ ছাত্রীর সন্ধানে নালায় তল্লাশি চালাচ্ছে।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে নগরীর ডবলমুরিং থানার আগ্রাবাদে জেক্স মার্কেটের সামনে নালায় পড়ে যান ওই ছাত্রী।

নিখোঁজ সেহেরীন মাহবুব সাদিয়া (১৯) চট্টগ্রামের আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। তার বাসা নগরীর হালিশহর থানার বড়পোল এলাকায় শুক্কুর মেম্বারের বাড়িতে। বাবা মোহাম্মদ আলী প্রবাসী। তবে বর্তমানে দেশে আছেন। দুই ভাই ও দুই বোনের মধ্যে সেহেরীন সবার বড়।

ঘটনাস্থলে থাকা ডবলমুরিং থানার উপপরিদর্শক (এসআই) অর্ণব বড়ুয়া সারাবাংলাকে জানান, মামার সঙ্গে আগ্রাবাদ শাহজালাল চশমা মার্কেটে চশমা কিনতে এসেছিলেন সেহেরীন। ফুটপাত দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় অসতর্কতাবশত নালায় পড়ে যান।

ঘটনাস্থলে থাকা ডবলমুরিং থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাসুদ রানা সারাবাংলাকে বলেন, সন্ধ্যায় বৃষ্টির পর নালায় পানি জমে আছে। ময়লা-আবর্জনাও আছে। নালার পাশে কোনো রিটেইনিং ওয়াল নেই। ফুটপাত দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় নালা বুঝতে না পেরে সম্ভবত পড়ে যান। ফায়ার সার্ভিসের টিম স্ক্যাভেটর দিয়ে উদ্ধার কার্যক্রম চালাচ্ছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, সেহেরীনের সঙ্গে মামা জাকির হোসেন ছিলেন। তিনি যখন নালায় পড়ে যান, জাকির বাঁচাতে নালায় ঝাঁপ দেন। তবে প্রবল স্রোতে ড্রেনের মধ্যে তলিয়ে যান সেহেরীন।

সেহেরীনের নিখোঁজের খবর পেয়ে বাবাসহ স্বজনরা ঘটনাস্থলে এসেছেন। ঘটনাস্থলে হাজারখানেক মানুষ জড়ো হয়েছেন।

এর আগে, গত ২৫ আগস্ট বৃষ্টির মধ্যে নগরীর মুরাদপুরে নালায় পড়ে নিখোঁজ হন সালেহ আহমদ নামে এক সবজি বিক্রেতা। গত এক মাসেও তার খোঁজ মেলেনি।

সারাবাংলা/আরডি/টিআর





Source link