চট্টগ্রামের বিভিন্ন ফসলের ক্ষেত থেকে ৭৪ রোহিঙ্গা আটক

110


স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো : কক্সবাজারের ক্যাম্প থেকে পালিয়ে আসা ৭৪ রোহিঙ্গাকে চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলা থেকে আটক করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, তারা বোয়ালখালীর কড়লডেঙ্গা পাহাড়ে বিভিন্ন ফসলের ক্ষেতে কাজ করছিলেন।

সোমবার (২৩ আগস্ট) দিবাগত রাতে উপজেলার আহলা-কড়লডেঙ্গা ইউনিয়নের বু-আলী কালন্দর শাহ মাজার এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

বোয়ালখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল করিম সারাবাংলাকে জানান, এসব রোহিঙ্গারা কালান্দর শাহ মাজার এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন। তারা কক্সবাজারের ক্যাম্প থেকে পালিয়ে এসে ওই এলাকায় অবস্থান করছিলেন। পাহাড়ে লেবু বাগানসহ বিভিন্ন ফসলের ক্ষেতে মালিকরা তাদের শ্রমিক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছিলেন। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

এর আগে গত ২৬ জুন কড়লডেঙ্গা পাহাড়ের বিভিন্ন বাগানে অভিযান চালিয়ে ৩১ জন রোহিঙ্গাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে আরও ২৮ রোহিঙ্গাকে একই এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বিভিন্ন বেআইনি পন্থায় রোহিঙ্গাদের কক্সবাজার থেকে বোয়ালখালীতে এনে শ্রমিক হিসেবে ব্যবহার করছে করলডেঙ্গা পাহাড়ের কিছু বাগান মালিক। অধিকাংশ লেবু বাগানের মালিক বাগানে শেড বানিয়ে রোহিঙ্গাদের বসবাসের সুযোগ দিয়ে কম মজুরির বিনিময়ে তাদের দিয়ে কাজ করাচ্ছে।

স্থানীয় শ্রমিক, যারা একসময় বাগানে কাজ করতেন তারা বেকার হয়ে পড়ছেন। এ নিয়ে সেখানকার স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে ক্ষোভ আছে।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট থেকে বাংলাদেশের কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফ ও বান্দরবানের তমব্রু সীমান্ত দিয়ে মিয়ানমারে সহিংসতার শিকার হয়ে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গারা প্রবেশ শুরু করেন। সেসময় কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সহিংসতার শিকার হয়ে ৭ লাখ ৪০ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে চলে আসে।

গত তিন দশকে আসা নতুন-পুরনো মিলিয়ে বাংলাদেশে বর্তমানে ১১ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গার বসবাস। এরমধ্যে কয়েক হাজার রোহিঙ্গাকে নোয়াখালীর ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়েছে। তবে সেখান থেকেও রোহিঙ্গাদের পালানোর কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে।

সারাবাংলা/আরডি/এএম





Source link