গাংনীতে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনের দায়ে ১৩ জনের অর্থদন্ড ও জনসচেতনতামূলক অভিযান

115

মেহেরপুর প্রতিনিধি। সরকার ঘোষিত লকডাউনের নবম দিনে লকডাউন বাস্তবায়ন করতে প্রতিদিন মাঠে রয়েছে প্রশাসন। শনিবার সকালে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ধানখোলা ইউনিয়নের গাঁড়াডোব এবং সাহারবাটি ইউনিয়নের জোড়পুকুরিয়ায় করোনা সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পাওয়ায় ব্যাপকভাবে সেখানে প্রচার-প্রচারণা এবং সচেতনতামূলক অভিযান পরিচালনা করে প্রশাসন। অভিযান পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুল আলম এবং জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মিথিলা দাস।
এসময় সরকারি নির্দেশনা অমান্য এবং স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনের দায়ে ১৩ জনকে ৪০৫০ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। অভিযানে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, পুলিশ বাহিনী, বিজিবি এবং আনসার ব্যাটালিয়ন। জনস্বার্থে অভিযান অব্যাহত থাকবে।
গাংনী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌসুমী খানম বলেন, প্রতিনিয়ত প্রশাসনের পক্ষ থেকে জনসাধারণকে করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা সম্পর্কে সচেতন করে চলছি‌, বোঝাচ্ছি এর ফলাফল কতটা বিপদজনক।
তিনি বলেন, সরকার কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের বয়সসীমা সর্বনিম্ন ২৫ বছর নির্ধারণ করেছে। ২৫ বছর এবং তদুর্ধ্ব সকলকে রেজিস্ট্রেশন করে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে। বিশেষ করে যাদের বয়স ৪৫ বছরের উর্ধ্বে তাদেরকে বিশেষভাবে অনুরোধ করা যাচ্ছে।
আসুন আমরা সবাই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখি, জরুরী প্রয়োজনে ঘরের বাইরে বের হলে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করি, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সবাই সচেতন হই এবং নিজেকে এবং নিজের পরিবারকে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে সুরক্ষিত রাখি।