গণস্বাস্থ্যকে চিঠি দিলো বঙ্গবন্ধু মেডিকেল, যা জানালেন জাফরুল্লাহ

0
1256

অবশেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থেকে কাঙ্ক্ষিত চিঠি পেয়েছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। আজ মঙ্গলবার সংস্থাটির উদ্ভাবিত করোনাভাইরাস নির্ণায়ক ‘জি র‌্যাপিড ডট ব্লট’ কিটের কার্যকারিতা পরীক্ষার জন্য এই চিঠি দেয় বিএসএমএমইউ।

এর আগে গত ৩০ এপ্রিল গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিএসএমএমইউকে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্ভাবিত কিটের সক্ষমতা যাচাইয়ে পরীক্ষা করার অনুরোধ করে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর। এরপর ২ মে বিএসএমএমইউ’র উপাচার্যের সঙ্গে বৈঠক করেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের গবেষক দল। ওই বৈঠকে কিটের সক্ষমতা পরীক্ষা করতে ছয় সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়।

বিএসএমএমইউ’র বিলম্ব দেখে গতকাল সোমবার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র তাদের উদ্ভাবিত কিট ব্যবহারে সরকারের কাছে সাময়িক অনুমতি চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করে।

এর মধ্যে আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী জানান, বেলা দুইটায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ চিঠি দিয়েছেন। চিঠিতে কিটের কার্যকারিতা পরীক্ষার খরচ বাবদ চার লাখ ৩৫ হাজার টাকা ব্যাংকে জমা দিতে বলা হয়েছে।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘এটা সরকারি খরচ এতে আমাদের কোনো আপত্তি নেই। দুপুর দুইটায় চিঠি আসায় আজকে ব্যাংকে টাকা জমা দিতে পারি নাই, আগামীকাল বুধবার জমা দেবো।’

তিনি বলেন, ‘একই সঙ্গে বিএসএমএমইউ কমিটি কার্যকারিতা পরীক্ষার জন্য ২০০ কিট চেয়েছেন সেটাও আমরা আগামীকাল ১১টার মধ্যে পৌঁছে দেবো।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে