খালেদা জিয়ার জেল হলে, শোভন-রাব্বানীর কেন জেল হবে না প্রশ্ন ড. খন্দকার মোশাররফের

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া সাবেক প্রধানমন্ত্রী হয়েও মাত্র দুই কোটি টাকার মিথ্যা মামলায় যদি কারাবন্দি থাকতে পারেন তবে ছাত্রলীগের সভাপতি শোভন ও সাধারণ সম্পাদক রাব্বানী জাবির উন্নয়ন প্রকল্পের ৮৬ কোটি টাকা আত্মসাতের দায়ে কবে জেলখানায় যাবেন?
আজ বুধবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এক আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
মোশাররফ বলেন, ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদককে বহিষ্কার করা হয়েছে।
আবার সরকার দলের লোকেরা নিজেরাই বলছেন, ছাত্রলীগের থেকেও যুবলীগের মধ্যে বড় দুর্নীতি-টেন্ডারবাজি আছে। এমন অভিযোগও আছে- ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের অপসারণের সাথেও নাকি অনেকে জড়িত আছেন।
যে মামলায় খালেদা জিয়া কারাগারে এই মামলার সাথে তার সম্পৃক্ততাই নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, শুধুমাত্র রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে তাকে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে। যে দুই কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে খালেদা জিয়াকে জেলে আটকে রাখা হয়েছে সেই টাকা আজ ৬ কোটিতে পরিণত হয়েছে। দুই কোটির যায়গায় ৬ কোটি হলে আত্মসাত করা হলো কীভাবে?
তিনি হতাশা প্রকাশ করে বলেন, বাংলাদেশের বড় সংকট হচ্ছে গণতন্ত্রহীনতা। বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে থাকার কারণেই বাংলাদেশকে গণতন্ত্রহীন করে রাখা সম্ভব হয়েছে। দেশে অলিখিত বাকশাল প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হয়েছে। অলিখিত বাকশালকে পাকাপোক্ত করার জন্য বেগম জিয়াকে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে।
আলোচনাসভায় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক, যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, কৃষকদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.