‘খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে সরকার দেশকে সহিংসতার পথে ঠেলে দিচ্ছে’

91


স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা নেওয়ার সুযোগ না দিয়ে সরকার দেশকে সহিংসতার পথে ঠেলে দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক।

তিনি বলেন, সংকটাপন্ন খালেদা জিয়ার বিদেশে উপযুক্ত চিকিৎসাকে বাধাগ্রস্ত করে সরকার দেশকে চরম বিভাজন,  হিংসা আর সহিংসতার পথে ঠেলে দিচ্ছে। বিরোধীদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে হামলা-আক্রমণ সরকারের অসহিষ্ণু স্বৈরতান্ত্রিক চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন। এ পরিস্থিতিতে তিনি খালেদা জিয়াকে দেশের বাইরে গিয়ে চিকিৎসা নেওয়ার সুযোগ দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

বিবৃতিতে সাইফুল হক বলেন, গতকাল (সোমবার) বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে কোনো উসকানি ছাড়াই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যেভাবে হামলা-আক্রমণ করেছে, নেতাকর্মীদের লাঠিপেটা করেছে, আহত করেছে— এগুলো সরকারের চরম অসহিষ্ণু ও নিপীড়নমূলক স্বৈরতান্ত্রিক চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ।

বিবৃতিতে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক বলেন, সরকার খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসা নেওয়ার সুযোগ না দিয়ে প্রতিহিংসা ও প্রতিশোধের রাজনৈতিক কৌশল গ্রহণ করেছে। এটি একদিকে সরকার পরিচালনায় তাদের শপথের পরিপন্থি, অন্যদিকে তাদের এই কৌশল দেশকে ভয়ংকর সংঘাত-সংঘর্ষের দিকে নিয়ে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, যখন রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে পারস্পরিক আস্থা, বিশ্বাস ও নৈকট্য গড়ে তোলা দরকার, ঠিক তখন সরকার যেভাবে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে বিরোধ আরও বাড়িয়ে তুলছে তা দেশকে কেবল আরও ভয়ংকর নৈরাজ্যের দিকে নিয়ে যাবে। এক সরকারের মধ্যে আরও কোনো সরকার কাজ করছে কি না— সরকারের আক্রমণাত্মক পদক্ষেপে জনগণের মধ্যে এ প্রশ্নও দেখা দিয়েছে। এ পরিস্থিতি কাম্য হতে পারে না।

সরকারকে জেদ, অহমিকা ও প্রতিহিংসার রাজনীতি থেকে বেরিয়ে এসে গুরুতর অসুস্থ খালেদা জিয়াকে তার পছন্দের দেশ ও হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার সুযোগ করে দিতে আবারও সরকারের প্রতি আহ্বান জানান সাইফুল হক। একইসঙ্গে তিনি বিরোধী দলের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশী নিপীড়ন-নির্যাতন বন্ধেরও দাবি জানান।

সারাবাংলা/এএইচএইচ/টিআর





Source link