কোম্পানীগঞ্জে সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২৮ | Unitednews24.com

0
142

 


নোয়াখালী প্রতিনিধি:: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে মঙ্গলবার আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা হয়েছে। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ২৪৮ জনের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে মামলাটি করেছে। এরমধ্যে ৯৮ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

এরইমধ্যে অভিযানে আটক ২৮ জনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে এ মামলায়। এছাড়া বসুরহাট পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড বড়রামপুর এলাকার বাসিন্দা জসীম উদ্দিনকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। তিনি বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার অনুসারী।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহেদুল হক বলেন, উপপরিদর্শক (এসআই) জাকির হোসেন বাদী হয়ে সরকারি কাজে বাধা ও পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে ৯৮ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেছেন। মামলায় অজ্ঞাতপরিচয়ের আরও ১৫০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ও রাতে হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনার পর পুলিশ বিশেষ অভিযানে নামে। রাতের ওই অভিযানে ২৭ জনকে আটক করা হয়। বুধবার সকালে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল থেকে সেলিম নামে আরেক যুবককে আটক করা হয়। তাদের কাছ থেকে সংঘর্ষের কাজে ব্যবহৃত ককটেল, লোহার রড ও দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার করা হয়। এরইমধ্যে তাদের গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে ওই মামলায়। এছাড়া মামলার বাকি আসামিদেরও গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

এদিকে সংঘর্ষের পর থেকে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে বসুরহাটে। পৌরসভা এলাকায় উপজেলা প্রশাসনের জারি করা ১৪৪ ধারার কারণে বাজারে সাধারণ মানুষের উপস্থিতি একেবারেই কম। এছাড়া বসুরহাট বাজারের বেশির ভাগ দোকানপাটই বন্ধ।

Print Friendly, PDF & Email

Source link