কাশ্মিরে জঙ্গি হামলায় ৪৪ ভারতীয় সেনার মৃত্যুর ঘটনায় যা বললো পাকিস্তান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : কাশ্মিরের পুলওয়ামায় সেনা কনভয়ে জঙ্গি হামলার নিন্দা করলো পাকিস্তান। ইমরান সরকারের তরফে এক বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, এই ঘটনা গভীর উদ্বেগের। বিশ্বের যে কোনও প্রান্তে হিংসার ঘটনার তীব্র নিন্দা করে আসছে পাকিস্তান।
তবে, এ দিন ভারতের সংবাদমাধ্যমকে এক হাত নিয়ে পাকিস্তান দাবি করে, তদন্ত ছাড়াই যে ভাবে ভারতের সংবাদমাধ্যম এবং সরকার এই ঘটনার সঙ্গে পাকিস্তানের যোগ কথা বলা হচ্ছে, তা নিন্দনীয়।
উল্লেখ্য, পুলওয়ামায় নারকীয় জঙ্গিহামলার দায় স্বীকার করা জইশ-ই-মহম্মদ যে পাকিস্তান মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন, তা আন্তর্জাতিক মঞ্চে সর্বজনবিদিত।
বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে তিনটে নাগাদ পুলওয়ামার অবন্তীপোরায় সিআরপিএফের সেনা কনভয়ে হামলা চালায় জঙ্গিরা। সেনা বাসে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এখন পর্যন্ত কমপক্ষে ৪৪ জওয়ানের শহিদের খবর মিলেছে। আহত অন্তত ৩৯ জওয়ান।
এই ঘটনার দায় স্বীকার করেছে ‘আন্তর্জাতিক জঙ্গি’ মাসুদ আজহারের ‘জইশ-ই-মহম্মদ’ জঙ্গি সংগঠন। এই ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠেছে আন্তর্জাতিক মহলেও। পাকিস্তানকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

সর্বোতভাবে ভারতে পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস দিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের তরফে এক বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, “জঙ্গিদের আশ্রয় এবং সমর্থন রুখতে যে প্রস্তাব জাতিসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাব গৃহীত হয় তা সব দেশকে কার্যকর করতে আহ্বান করা হচ্ছে।”
পাশাপাশি জঙ্গি দমনে কড়া ব্যবস্থা নিতে পাকিস্তানকে ফের বার্তা দেয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। আন্তর্জাতিক স্তরে সব দেশকে ভারত আবেদন জানিয়েছে, জইশ-ই-মহম্মদ প্রধান মাসুদ আজহার-সহ একাধিক জঙ্গিকে ‘আন্তর্জাতিক জঙ্গি’ হিসাবে চিহ্নিত এবং পাকিস্তানের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত জঙ্গি সংগঠনগুলিকে দ্রুত নিষিদ্ধ ঘোষণা করুক জাতিসংঘ।
উল্লেখ্য, চিনের সম্মতি না মেলায় মাসুদ আজহারকে এখনও পর্যন্ত ‘আন্তর্জাতিক জঙ্গি’ হিসাবে চিহ্নিত করা যায়নি।?

!-- Composite Start -->
Loading...
মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.