করোনায় আক্রান্ত হয়ে এইমসে ভরতি ভারতের প্রাক্তন ভাপ্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং

0
91

নয়াদিল্লী, ১৯ এপ্রিল – দ্বিতীয় ধাক্কায় আরও ভয়াবহ করোনা ভাইরাস (Coronavirus)। এবার মারণরোগ থাবা বসাল দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের (Manmohan Sing) শরীরে। নানা উপসর্গ নিয়ে তাঁকে ভরতি করা হল দিল্লির এইমসে। তাঁর চিকিৎসায় তৈরি হয়েছে বিশেষ টিম। বয়স নব্বইয়ের কাছাকাছি হওয়ায় তাঁর শারীরিক পরিস্থিতি চিন্তা বাড়াচ্ছে চিকিৎসকদের। আপাতত পর্যবেক্ষণে রয়েছেন মনমোহন সিং।

প্রসঙ্গত, রবিবারই তিনি দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে চিঠি লিখেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। এ নিয়ে সাবধানতা অবলম্বন, প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার কথাও বলেন। সেখানে তিনি নিজে থেকে ৫ টি প্রস্তাব দিয়েছিলেন। সূত্রের আরও খবর, তার আগে ৮ তারিখ করোনা ভ্যাকসিনের (Corona vaccine) দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছিলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু সোমবার, ১০ দিনের মধ্যেই তিনি করোনা আক্রান্ত হলেন। সূত্রের খবর, এদিন অসুস্থ বোধ করায় বছর অষ্টআশির মনমোহন সিংয়ের করোনা পরীক্ষা করানো হয়। রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর আর কোনও ঝুঁকি না নিয়ে দিল্লির এইমসে ভরতি করান পরিবারের সদস্যরা। তিনি আপাতত ট্রমা সেন্টারে ভরতি।

আরও পড়ুন : আসামে এবার অনলাইনে মুসলিমদের জরিপ, তীব্র বিতর্ক

খবর পেয়ে মনমোহন সিংয়ের ঘনিষ্ঠরা চিন্তিত হয়ে পড়েন। অনেকেই খোঁজখবর নিতে শুরু করেন। কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্ব তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন। টুইট করেছেন রাহুল গান্ধী।

সুস্থতা কামনায় টুইট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

২০১৪ সালে নির্বাচনে হেরে দেশের প্রধানমন্ত্রীর চেয়ার ছাড়ার পর থেকে সেভাবে সক্রিয় রাজনীতিতে তিনি নেই। যদিও কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্বে সোনিয়া ঘনিষ্ঠ এই নেতার স্থান বরাবরই আলাদা। কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির সদস্য মনমোহন সিং। দলীয় বৈঠকে তিনি সাধারণত উপস্থিত থাকতেন। এর বাইরে মনমোহন সিংকে বিশেষ দেখা যায়নি। করোনা সংকটকালে বাড়ির বাইরেও বেশি বেরতেন না। তবে দ্বিতীয় পর্যায়ে ধেয়ে আসা মারণরোগের ধাক্কা সামলাতে পারলেন না। কাবু হয়ে পড়লেন দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী।

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন
অভি/ ১৯ এপ্রিল

Source link