এনবিআরে অটোমেশন না হওয়ায় অর্থমন্ত্রীর ক্ষোভ

0
115

ঢাকা, ১১ ফেব্রুয়ারি – জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) অটোমেশন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে দেয়া ওয়াদা রাখতে না পেরে এনবিআর কর্মকর্তাদের সামনে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় রাজস্ব বোর্ডের প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সেরা করদাতাদের ট্যাক্সকার্ড ও সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।

অর্থমন্ত্রী বলেন, জনগণকে কথা দিয়েছিলাম অটোমেশন হবে, প্রধানমন্ত্রীকে কথা দিয়েছিলাম অটোমেশন হবে। কিন্তু অটোমেশনের কিছুই অগ্রসর হয়নি। দেরি না করে এখানে হাত দেন। দীর্ঘদিনের অভ্যাস ত্যাগ করতে হলে কাউকে না কাউকেতো উদ্যোগ নিতেই হবে।

তিনি বলেন, প্রতিবেশি দেশগুলোর সঙ্গে তুলনায় আমাদের কর জিডিপি অনুপাত এখনও অনেক কম। আমাদের অন্তত ১৫ থেকে ১৭ শতাংশ কর জিডিপি হওয়া উচিত। এজন্য রাজস্ব বোর্ডকে ডিজিটাল ব্যবস্থায় যেতে হবে। তাহলে যেসব খাত থেকে কর পাই, তা আরো বেড়ে যাবে। নতুন নতুন খাত বের হয়ে আসবে। দেরি না করে কর ব্যবস্থাপনা ডিজিটাল করুন।

আরও পড়ুন : আশা করি সরকার ভুলেও আগুনে হাত দেবে না: অলি আহমদ

এনবিআরের কর্মকর্তাদের আরো দায়িত্ববান হওয়ার আহ্বান জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, আমি আবারও বলছি, দেশের মানুষ কর দিতে চায়। হয়তো আমরা সব জায়গায় পৌঁছাতে পারি না। সমন্বয় করতে পারলে করের আওতা বাড়বে। এ প্রজন্ম হচ্ছে রেভিনিউ জেনারেশন।

এ সময় করের আওতা বাড়াতে কর ব্যবস্থাপনা ডিজিটাল করার তাগিদ দেন মন্ত্রী। বলেন, আগে কর নিয়ে মানুষের মধ্যে অনেক ভয়ভীতি ছিল, যা এখন অনেকটা দূর হয়েছে। আমাদেরকে কর সংগ্রহের সিস্টেমটা আরো উন্নত করতে হবে। এটা করতে পারলে জনগণ করের আওতায় চলে আসবে।

প্রত্যক্ষ কর বেড়েছে জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, প্রত্যক্ষ কর বেড়েছে। আমাদের আরো বাড়াতে হবে। সেক্ষেত্রে করের হার না বাড়িয়ে আওতা বাড়াতে হবে। রেট না কমালে করের আওতা বাড়বে না। মোট কথা খাত বৃদ্ধি করতে হবে। সেটা করতে পারলে আমরা লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবো।

সবাইকে কর দেয়ার আহ্বান জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, নিজে কর দেবেন, অপরকেও কর প্রদানে উৎসাহিত করবেন। আমাদের অনেক মেগা প্রকল্পের কাজ চলমান আছে। আরো মেগা প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। এতকিছু করার সাহস আসে করদাতাদের কাছ থেকে। এজন্য করের আওতায় বৃদ্ধি করতে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

অনুষ্ঠানে করদাতাদের সম্মাননাপত্র, আইডি কার্ড ও ক্রেস্ট ছাড়াও প্রথমবারের মতো উপহার হিসেবে স্যুভেনিয়র প্রদান করা হয়। এছাড়া একইদিনে সারাদেশের বিভিন্ন কর অঞ্চলে পুরস্কারপ্রাপ্ত করদাতাদের সম্মাননাপত্র দেয়া হয়।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ১১ ফেব্রুয়ারি

Source link