‘এখানে অসভ্যদের জয়জয়কার, কোন সভ্য দেশে এই রকম হয় না’

দাবি-দাওয়া থাকতেই পারে। দাবি ন্যায্য হলে এবং জনস্বার্থ বিরোধী না হলে তা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বরাবর যথানিয়মে পেশ করা যেতে পারে। তাই বলে লাখ লাখ মানুষকে জিম্মি করে দাবি আদায় করতে হবে? এটা কোন ধরনের কাণ্ডজ্ঞানের পরিচয়? পরিবহন ব্যবসা কি একটা ফটকা ব্যবসা? তা তো নয়। এটা তো একটা সেবামূলক ব্যবসা। দুনিয়ার কোন দেশে দাবি-দাওয়া আদায়ের জন্য গণপরিবহন বন্ধ রাখার নিয়ম নাই। কোন সভ্য দেশে এটা করা হয় না। কিন্তু বাংলাদেশ তো সভ্যদের দেশ নয়! এখানে অসভ্যদের জয়জয়কার। আজ সকাল থেকেই নগরীর বিভিন্ন পয়েন্ট ঘুরে ঘুরে দেখলাম। স্বাভাবিকের তুলনায় গণপরিবহন একটু কম হলেও যান চলাচল স্বাভাবিকই দেখলাম। বরং কোন কোন পয়েন্টে তীব্র জ্যাম। যেমন এ মুহুর্তে আমি আগ্রাবাদে জ্যামে আটকা পড়ে আছি। অভিযোগ ছিলো, ধর্মঘটের নাম দিয়ে বিভিন্ন রুটের গণপরিবহনে বাড়তি ভাড়া দাবি করা হচ্ছে। এ অভিযোগের কিছু কিছু সত্যতা পাওয়া গেলেও অধিকাংশ গণপরিবহনে দেখলাম নরমাল ভাড়াই নেয়া হচ্ছে। বাড়তি ভাড়া না নিতে চালক-হেলপারদের কঠোরভাবে বলে দেয়া হয়েছে। আর বাড়তি ভাড়া চাইলেই কি আপনাদের দিয়ে দিতে হবে? আপনারা দেবেন না। আপনাদের পথচলা নিরাপদ হোক। সবার জন্য শুভকামনা রইলো।

এস, এম, মনজুরুল হক
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট
বিআরটিএ, চট্টগ্রাম।

!-- Composite Start -->
Loading...
মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.