এক ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা স্কুল শিক্ষিকার

প্রতিবেশী ডেস্কঃ যমে মানুষে টানাটানি, এহেন অবস্থায় মায়ের কোল খালি করে যমেই নিয়ে গেল ছোট্ট বালক রূপমকে। স্কুলের এক শিক্ষক, রূপমকে বেধড়ক মারধর করায় রূপমের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ শিশুর পরিবারের। যদিও স্কুল কর্তৃপক্ষ সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে।
ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়ায়। পুয়াবাগান শিক্ষানিকেতনের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র রূপম পাল তার শিক্ষিকার মারধরে মারা গেছেন বলে জানা গেছে।
রূপমের বাবা চক্রধর পালের অভিযোগ, গত বুধবার স্কুলে কাবাডি খেলা শেষ করার পর রূপম ক্লাসে টেবিলের উপর মাথা রেখে বিশ্রাম নিচ্ছিল। সেই সময় বিজ্ঞানের শিক্ষিকা ক্লাসে ঢোকেন। রূপম সেটা বুঝতে পারেনি, তাই সে উঠে দাঁড়ায়নি। উঠে না দাঁড়ানোর অপরাধে ওই শিক্ষিকা রূপমের মাথা ঠুকে দেন টেবিলে। এরপর থেকেই রূপমের রক্তবমি করতে শুরু করে। স্কুল থেকেই বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় রূপমকে। তখন থেকেই মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছিল রূপম।
তার অভিযোগ, ছেলের অবস্থা খারাপ জেনেও স্কুলের বাইরে থাকা রূপমের গাড়ির চালককে সেকথা জানাননি স্কুল কর্তৃপক্ষ।
অপরদিকে, পুয়াবাগান শিক্ষা নিকেতনের প্রধান শিক্ষক তপন কুমার পতি জানান, ছাত্রটি অসুস্থ হতেই আমরা হাসপাতালে ভর্তি করি।
এদিকে শেষ পাওয়া খবরে, পাল পরিবারের তরফে এখনও পর্যন্ত্য বাঁকুড়া সদর থানায় কাছে কোনো লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। তবে পুলিশ সুপার কোটেশ্বর রাও বলেন যে, অভিযোগ পেলে আমরা যথাযথ ব্যবস্থা নেবো।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.