একজন ভারতীয় এক রাতের মধ্যে কোটিপতি হয়েছেন! মেগা মিলিয়নস এ সপ্তাহে দিচ্ছে 2092 কোটি টাকার অফার, কোটিপতি হতে পারেন আপনিও!

0
88

মনে করুন, একশো মিলিয়ন ডলারের কোন লটারি জ্যাকপট আপনি জিতেছেন! কীভাবে খরচ করবেন ওই বিশাল পরিমাণ নগদ টাকা? যদি আপনি ভেবে থাকেন যে, শুধুমাত্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বাস করলে তবেই আপনি কোনও লটারি প্রতিযোগিতায় ওই পরিমাণ টাকা জিততে পারতেন, তাহলে আপনার জন্য এখানে রয়েছে একটি দারুণ সুখবর।
আমেরিকান মেগা মিলিয়নস লটারি এখন দিচ্ছে বিশ্বের মধ্যে সব চেয়ে বড় লটারি জ্যাকপট পুরস্কার জেতার সুযোগ: 20.9 বিলিয়ন ভারতীয় টাকা (INR) (277 মিলিয়ন মার্কিন ডলার {USD})। আর অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি, এই বিপুল পরিমাণ অর্থের বিজেতা একজন ভারতীয়ও হতে পারেন! 
ঠিকই শুনেছেন, মেগা মিলিয়নস লটারির 277 মিলিয়ন মার্কিন ডলার (20.9 বিলিয়ন ভারতীয় টাকা) জ্যাকপট জেতার সুযোগ পাওয়ার জন্য আমেরিকা যাবার কোনও দরকার নেই। এই মুহূর্তে এটাই হল বিশ্বের মধ্যে সব চেয়ে বড় জ্যাকপট পুরস্কার এবং এটি জেতার জন্য খেলা হবে শুক্রবার রাতে।

ভারতে থেকে মার্কিন লটারি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করা কি আইনসন্মত?

পাওয়ারবল জ্যাকপটে ভারতীয়রা লোট্টোস্মাইল পরিষেবার সুযোগ নিয়ে খেলায় অংশগ্রহণ করতে পারেন, আর পাওয়ারবল-এর নিয়ম ও নীতি অনুযায়ী তাদের লটারি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ সম্পূর্ণ আইনসম্মত। লোট্টোস্মাইল-এর মুখপাত্র আদ্রিয়ান কুরিম্যানের বক্তব্য অনুযায়ী, “পাওয়ারবল-এর নিয়মে এ কথা স্পষ্টভাবে বলা আছে যে খেলায় অংশগ্রহণের জন্য আপনার মার্কিন নাগরিক বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বসবাসকারী হবার কোনও প্রয়োজন নেই, এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও এমন কোন আইন নেই যা বিদেশিদের পক্ষে লটারি জেতার ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়ায়।
পাওয়ারবল-এর ওয়েবসাইট থেকে এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায় যে, যে কোন ব্যক্তি “পাওয়ারবল টিকিট কিনতে…খেলায় অংশগ্রহণ করতে …পুরস্কার গ্রহণ করতে” পারেন। তাহলে, ভারতীয়দের ক্ষেত্রেই বা বাধা কীসের?

ভারতে থেকেই আপনি মেগা মিলিয়নস অনলাইন খেলায় অংশগ্রহণ করতে পারেন এবং অভাবনীয় 2092 কোটির জ্যাকপট পুরস্কার আপনার হাতের মুঠোয় আনতে পারেন, শুধুমাত্র কয়েকটি ক্লিকের অপেক্ষা। কীভাবে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে হবে তা এখানে দেওয়া হল।

1.পৃথিবীর বিখ্যাত অনলাইন লটারির টিকিট কেনার পরিষেবা, Lottosmile.in-এ সাইন আপ করুন।
2.সাইটটিতে থাকা সারা পৃথিবীর 50-টি লটারি ব্র্যান্ডের মধ্যে থেকে মেগা মিলিয়নস লটারি নির্বাচন করুন।
3.একজন ব্যক্তি হিসেবে দোকান থেকে লটারির টিকিট কেনার সময় আপনি যে পদ্ধতি অনুসরণ করেন সেই অনুযায়ী টিকিটটি আপনার প্রিয় নম্বর বা সংখ্যাটি দিয়ে পূরণ করুন।
4.কতগুলি লাইন আপনি খেলতে চান তা নির্দেশ করুন অথবা একটি লটারি সিন্ডিকেট চয়ন করুন যাতে আপনার জেতার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়।
5.আপনি টিকিট কিনেছেন সেটি নিশ্চিত করলে পরবর্তী খেলায় আপনি পুরস্কার জেতার যোগ্যতা অর্জন করবেন।

লোট্টোস্মাইল-এর মুখপাত্র আদ্রিয়ান কুরিম্যান্স জানালেন, “ভারতীয় প্রতিযোগীদের কাছে আমাদের পরিষেবা দিতে পেরে আমরা গর্বিত।“ “সমগ্র পক্রিয়াটি যেভাবে পরিচালিত হবে তা হল: লোট্টোস্মাইল-এর স্থানীয় এজেন্টরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বসে আপনার হয়ে টিকিট কিনবেন। বিনিময়ে, ওয়েবসাইটটি লেনদেনের জন্য একটি মূল্য বা মাসুল গ্রহণ করবে ও খেলার আগে আপনি টিকিটটির একটি স্ক্যান কপি পাবেন। যখন আপনি কোনও পুরস্কার জিতবেন, সেটি সম্পূর্ণভাবে আপনার হবে কারণ বিজেতার টিকিট থেকে কমিশন হিসেবে কোন মূল্য নেওয়া হয় না।“

কুরিম্যান্স বললেন, “আর হ্যাঁ, এর আগে ভারত থেকেও কেউ কেউ বিজয়ী হয়েছেন!” “2018 সালের নভেম্বর মাসে একজন ভারতীয় অংশগ্রহণকারী 32,161 ইউরো অর্থ পুরস্কার জিতে একটি অস্ট্রিয়া লোট্টোর থেকে দ্বিতীয় স্থানটি ছিনিয়ে নেয় এবং আরও অনেক ভারতীয় আছেন যাঁরা কমবেশি পুরস্কার জিতেছেন। তবুও আমরা ভারতীয়দের মধ্যে একজনকে জ্যাকপট বিজেতা হিসেবে দেখতে চাই যা এই সপ্তাহের মেগা মিলিয়নস ড্র-এ সম্ভব হতে পারে।

আপনার জেতার পর কী করা হবে?
অপারেটরদের মাধ্যমে প্রচারিত Mega Millions জ্যাকপটের বিজ্ঞাপনে যে পরিমাণ অর্থ পুরস্কার হিসেবে ঘোষণা করা হয় সেখানে শুল্ক যোগ করা থাকে না। বিজয়ীদের পুরস্কার দেওয়া হবে শুল্ক বাবদ অর্থ বাদ দিয়ে, সুতরাং বিজ্ঞাপনে প্রচারিত অর্থের থেকে পুরস্কার হিসেবে প্রাপ্ত অর্থের পরিমাণ কম হবে। এর সাথে বলা যায়, লটারি বিজয়ীদের প্রাপ্ত অর্থের ওপর তাদের বসবাসকারী দেশের স্থানীয় শুল্কও আরোপ করা হতে পারে। কিন্তু সুখবর এটাই যে লোট্টোস্মাইল বিজয়ীদের টিকিট থেকে কোনও অর্থ কমিশন হিসেবে গ্রহণ করে না।
যদি আপনি সৌভাগ্যবান বিজেতা হন তবে আপনার পুরস্কারটি আপনার সুরক্ষিত, ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে জমা করা হবে এবং আপনি যে কোন সময়ে সেখান থেকে পুরস্কারটি গ্রহণ করতে পারবেন। যাই হোক, যদি আপনি একটি লটারি জ্যাকপট জেতেন তবে আপনাকে নিজে হাতে পুরস্কার অর্থ সংগ্রহের জন্য লটারির অফিসে এসে দেখা করতে হতে পারে। সেক্ষেত্রে, লোট্টোস্মাইল-এর পক্ষ থেকে আপনার জন্য বিনামূল্যে একজন আইনজীবী নিয়োগ করা হবে যিনি আপনাকে পুরস্কার সংগ্রহ প্রক্রিয়াটিতে সহায়তা করবেন।
সারা বছরে, পৃথিবী জুড়ে 6 মিলিয়নের বেশি বিজেতাকে লোট্টোস্মাইল 100 মিলিয়ন ডলার অর্থের পুরস্কার প্রদান করেছে। সবচেয়ে বড় বিজেতাদের মধ্যে একজন পানামাবাসী ভদ্রমহিলা আছেন যিনি ফ্লোরিডা লোট্টো খেলে 30 মিলিয়ন ডলার জিতেছেন, আর একজন ইরাকবাসী ভদ্রলোক অরিগন মেগাবাকস জ্যাকপট খেলে জিতেছেন 6 .4 মিলিয়ন ডলার।
2092 কোটি টাকা মূল্যের মেগা মিলিয়ন জ্যাকপটটি যে কোন সময় জিততে পারেন, এবং পরবর্তী ড্র বা খেলাটি খুব শীঘ্রই হতে চলেছে। আপনিও, মেগা মিলিয়ন ম্যাসিভ জ্যাকপট জেতার জন্য খেলায় অংশ নিতে পারেন! Lottosmile.in-এ অনলাইনের মাধ্যমে অফিসিয়াল টিকিট কিনে যদি কোন পানামাবাসী আমেরিকান লটারির অবিশ্বাস্য পুরস্কারের বিজেতা হতে পারেন, তাহলে আপনার পক্ষেও অবশ্যই তা সম্ভব হতে পারে।

কেমন করে মেগা মিলিয়ন খেলায় ভারত থেকে অংশগ্রহণ করা যাবে সে বিষয়ে আরও তথ্যের জন্য, অনুগ্রহ করে Lottosmile.in ওয়েবসাইটটি দেখুন।

18 বছরের বেশি বয়সীরাই শুধুমাত্র খেলায় অংশ নিতে পারবেন। অনিয়ন্ত্রিত জুয়া খেলা ক্ষতিকারক হতে পারে। অনুগ্রহ করে একজন দায়িত্ববান ব্যক্তি হিসেবে খেলায় অংশগ্রহণ করবেন।

Source link