উপজেলা নির্বাচন নিয়ে হতাশ সিইসি

ডেস্ক রিপোর্টঃ আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বড় কয়েকটি রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ না করাকে হতাশাব্যাঞ্জক বলেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা। রোববার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের ইটিআই ভবনে উপজেলা নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষকদের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি উদ্বোধনকালে তিনি এই হতাশা প্রকাশ করেন।

সিইসি কে এম নূরুল হুদা বলেন, আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে বড় কয়েকটি রাজনৈতিক দল অংশ নেবে না। এটা ইসির জন্য হতাশাজনক খবর। তবুও নির্বাচন প্রতিযোগিতামূলক হবে। কারণ, এটি স্থানীয় সরকারের নির্বাচন। এ ধরনের নির্বাচনে স্থানীয়রা প্রার্থী হওয়ায় নির্বাচন অনেক বেশি প্রতিযোগিতামূলক হয়।

!-- Composite Start -->
Loading...

প্রশিক্ষকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনাদের সবাইকে পক্ষপাতমুক্ত আচরণ করতে হবে। কেউ কোনো ব্যক্তি, দল, প্রার্থীর প্রতি পক্ষপাতমূলক আচরণ করলে ইসি সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কঠোর হবে। তদন্তে দোষী প্রমাণ হলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, আপনাদের কোনো দল নেই, মত নেই, আপনারা প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী। সংবিধান, আইন ও বিধির বাইরে আপনাদের কারও কাছে দায়বদ্ধতা নেই।

তিনি আরো বলেন, ভোটকেন্দ্রে পোলিং এজেন্টদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিষয়ে আপনাদের সচেষ্ট থাকতে হবে। ভোটের দিন অনেক এজেন্ট প্রার্থীর অবস্থা ভালো না দেখলে কেন্দ্র ছেড়ে যান। অনেক দুর্বল প্রার্থী আবার এজেন্টই দিতে পারেন না। এমন বাস্তবতায় ভোট শেষে অনেকে তাদের এজেন্টকে কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ তোলেন, যা অনেকাংশেই সত্য নয়। ফলে নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত সব পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্রে অবস্থান, তাদের নিরাপত্তা বিধান ও ভোট শেষে এজেন্টদের হাতে ফলাফলের একটি করে শিট ধরিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নিতে হবে।

অনুষ্ঠানে ইটিআইয়ের মহাপরিচালক মোস্তফা ফারুকসহ নির্বাচন কমিশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.