উন্নয়নের বিষে লাল বাংলাদেশ— সংসদে রুমিন

83


স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বিএনপির সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা বলেছেন, আমি দেখি উন্নয়নের বিষে লাল বাংলাদেশ। মার্কিন সংস্থা ‘মিলেনিয়াম চ্যালেঞ্জ করপোরেশন’ দরিদ্র ও সুশাসন নিশ্চিতে চেষ্টায় থাকা দেশগুলোকে আর্থিক সহায়তা দিয়ে থাকে। তারা বিভিন্ন অংকে অনুদান দেয়। বাংলাদেশ এ ফান্ড পাওয়ার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছে। তাদের ১৬টি ক্ষেত্রে রেড জোনে আছে বাংলাদেশ। আগের বছরগুলোতে ছিল আরও কম। এখন পরিস্থিতি ক্রমাগত খারাপ হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) একাদশ জাতীয় সংসদের ১৫তম অধিবেশনে অংশ নিয়ে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আলোচনায় এ কথা বলেন।

বিএনপির সাংসদ রুমিন ফারহানা বলেন, “ইয়াহিয়ার মতো একজন সামরিক শাসকের অধীনেও একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়েছিল। ‘সোনার বাংলা শ্মশান কেন’— এটা ছিল আওয়ামী লীগের ১৯৭০ সালের নির্বাচনি পোস্টারের স্লোগান। সেখানে দুই পাকিস্তানের অর্থনৈতিক বৈষম্যের কথা তুলে ধরা হয়েছিল। সেই নির্বাচনে বিজয়ীর পরে ক্ষমতা আওয়ামী লীগের হাতে হস্তান্তর না করায় আমরা পেলাম স্বাধীন বাংলাদেশ। স্বাধীন বাংলাদেশের সংবিধানে সব নাগরিকদের জন্য আইনের শাসনের অঙ্গীকার করা হয়েছিল। আজ দেশে সরকারি দলের কিছু নেতাকর্মী, কিছু ব্যবসায়ী, কিছু দুর্নীতিবাজ সরকারি কর্মকর্তা অর্থাৎ সর্বোচ্চ ১০ শতাংশ মানুষের সঙ্গে বাকি ৯০ শতাংশ মানুষের অর্থনৈতিক বৈষম্য বাড়ছে।’

তিনি বলেন, ‘গণতন্ত্রকে মূলমন্ত্র ধরে একটি স্বাধীন দেশের জন্ম হয়েছে। সেই দেশে গত এক যুগ ধরে চালু হয়েছে, আগে উন্নয়ন পরে গণতন্ত্র, সীমিত গণতন্ত্র।’

রুমিন ফারহানা বলেন, ‘বেশি উন্নয়ন, কম গণতন্ত্র। উন্নয়নের গণতন্ত্র নামক উদ্ভুত সব স্লোগান। ঠিক যেমন আইয়ুবের বুনিয়াদী গণতন্ত্র। সামরিক স্বৈরশাসক তার ক্ষমতায় থাকার বয়ান হিসেবে উন্নয়নকে বেছে নিয়েছিল। বর্তমান সরকারও একদম তাই।’

সারাবাংলা/এএইচএইচ/পিটিএম





Source link