উঠে দাঁড়াও..

310

বুকভরে একটা দীর্ঘ নিঃশ্বাস নাও। বুকে সাহস আনো। সব কিছু এখনও শেষ হয়ে যায়নি। গল্পের অনেক বাকি আছে। অপেক্ষা করো।

যতটা খারাপ অবস্থায় আছ ভাবছ, ততটা খারাপ অবস্থায় তুমি নেই। তুমি এ পৃথিবীর সবচাইতে দুঃখী মানুষটা নও। তোমার চাইতেও অনেক কষ্টে আছে যারা, ওরাও একদিন পৃথিবীজয় করবে। নিজের চোখেই সব দেখবে, তখন বুঝবে।

তোমার দেরি হয়ে যাচ্ছে? শিওর? কীভাবে? এমনও তো হতে পারে, তোমার চাইতে এগিয়ে আছে যারা, একদিন তুমি ওদের চাইতেও অনেক বেশি এগিয়ে যাবে। তুমি নিজেই জানো না, তোমার জন্য কী অপেক্ষা করে আছে। ওরা হাঁটলে তুমি দৌড়োবে। ওরা দৌড়োলে তুমি লাফাবে। ওরা লাফালে তুমি উড়বে। উড়তে জানতে হয়; ওড়ার আগে উড়তে শিখে নাও। শিখে নেবার আগেই উড়তে যেয়ো না, হোঁচট খেয়ে পড়ে যাবে।

আজ খুব কষ্ট পাচ্ছ? সবাই খুব কষ্ট দিচ্ছে? সব কিছুই অর্থহীন মনে হচ্ছে? একটা একটা করে সব ভেঙে পড়ছে?

আর কিছু নয়, শুধু নিজেকে ধরে রাখো। দেখো, শেখো, লড়ো। একদিন মনে হবে, আজকের দিনটা জীবনে না এলে অনেক কিছুই শিখতে পারতে না, মানুষ চিনতে পারতে না, ঝড়ের মুখোমুখি দাঁড়াতে ভয় পেতে। বিপদে পড়ার সৌভাগ্য সবার হয় না। বিপদ থেকে শিখতেও সবাই পারে না। মানুষ কাঁদতে কাঁদতেই হাসতে শেখে।

অনেকের জন্যই জীবন খুব সহজ পথেই চলে। চলতে চলতে একদিন যখন হঠাৎ কঠিন সময় এসে হাজির হবে, তখন ওরা একেবারেই ছিটকে পড়ে। বিশ্বাস না হলে, অপেক্ষা করো, সব দেখতে পাবে। নিশ্চিত থেকো, সেদিন তুমি ছিটকে পড়বে না, ঠিকই ঘুরে দাঁড়াতে পারবে…শুধুই আজকের দিনটার কারণেই।

কঠিন সময় আসবেই। এটাকে এড়ানো যাবে না। তবে কঠিন সময়ে টিকে থাকতে শিখে নেওয়া যায়। ওটাই করো। সুযোগকে কাজে লাগাও। মানুষের জীবনে বিপদের ছদ্মবেশেই সুযোগ আসে।

চিৎকার করে কাঁদো, ভাঙচুর করো। মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে তো পড়ুক, পায়ের তলা থেকে মাটি সরে যায় তো যাক, তবু হাল ছেড়ো না। যারা জেতে, ওরা শুরুর ধাক্কাগুলি দেখে পালিয়ে যায় না, হাত-পা গুটিয়ে বসে থাকে না। জীবন ওদের জন্যও সহজ কিছু নয়। ওরা লেগে থাকে, নিজের সবটুকু শক্তি দিয়ে লড়াই করে যায়। এইটুকুই সব পার্থক্য গড়ে দেয়। লেগে থাকো, একদিন তোমারও হবে।

ব্যাপারটা ধীরে হচ্ছে? হোক না! তুমি যদি হাল ছেড়ে দাও, তাহলে তো আর সব কিছু জলদি জলদি হয়ে যাবে না, তাই না? মানুষ হারতে হারতেও জিতে যায়, যদি লেগে থাকে। মানুষ জিততে জিততেও হেরে যায়, যদি ছেড়ে দেয়। অসংখ্য নজির আছে। ইতিহাস ওলটাও, দেখতে পাবে।

বাজে অবস্থার বিরুদ্ধে লড়াই না করলে ভালো অবস্থার দেখা পাবে কী করে? ভয় পেয়ে, ক্লান্ত হয়ে হাল ছেড়ে দিলে ওখানেই তো সব সম্ভাবনার মৃত্যু! শেষটা দেখেই ছাড়ো। অবসাদ এসে ঘিরে ধরবে, আহত হবে, রক্তাক্ত হবে, মরে তো আর যাবে না, তাই না? জীবনটা অত ঠুনকো কিছু নয়।

যদি তোমার চলার পথটা অন্যদের চাইতে আলাদাও হয়, তবু দ্বিধান্বিত হয়ো না। পথ তো আলাদা হতেই পারে। অন্য পথ মানেই তো আর ভুল পথ নয়, তাই না? সময় সব বলে দেবে। সময়ের উপর আস্থা রাখো, চেষ্টা করে যাও। নিজের নিয়তটাকে ঠিক রেখো, তাহলেই হবে।

তোমারও অনেক কিছু করার আছে। তুমিও সম্মান পাবার যোগ্যতা রাখো। তোমাকেও লোকে একদিন সমীহ করে চলবে। সেই দিনটার জন্য ধৈর্য ধরে, আঘাত সহ্য করে, দাঁতে দাঁত চেপে অপেক্ষা করো। দেখবে, এইসব অন্ধকার রাতগুলির শেষে আলোয়-ভরা দিনগুলি একদিন ঠিকই আসবে।