ইন্টারনেটে ইরা খানের ঝড়

বিনোদন ডেস্ক: বলিউড `পারফেকশনিস্ট` খ্যাত আমির খানের মেয়ে হলেও ইরা খানকে কখনও সেভাবে একা ক্যামেরার সামনে আসতে দেখা যায়নি। কিন্তু এবার ইরা খান-কে দেখা গেল একেবারে অন্যরকম মুডে। জংলা ছাপের ঘন রঙের পোশাক। সঙ্গে ভারী গয়না। কপালে বড় বিন্দি। বাদামী রঙের টপ-এর সঙ্গে ডেনিম জিন্স। এমনই সাহসী ফটোশুটে ইন্টারনেট মাতাচ্ছেন আমির-কন্যা।

ওই ছবিতে তার সঙ্গে অন্য একজন মডেলকেও দেখা যায়। যাকে ইরা খানের পায়ের কাছে বসে থাকতে দেখা যায়। আর এই ছবি দেখে যেন উচ্ছ্বসিত হয়ে উঠেছেন ইরা খানের ভক্তরা। আমির-কন্যা যে এই ধরনের কোনও ফটোশুট করতে পারেন, তা বোধ হয় কল্পনাও করতে পারেননি তার ভক্তরা।

!-- Composite Start -->
Loading...

সুপারস্টার আমির খান এবং তার প্রাক্তন স্ত্রী রীনা দত্তের মেয়ে ইরা অনেক দিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় জনপ্রিয়। এই ফটোশুটের আগেও শিরোনামে এসেছিলেন তিনি। যখন জানিয়েছিলেন তার প্রেম সম্পর্কে। ইনস্টাগ্রামে তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, তিনি কি এখন কারও সঙ্গে ডেট করছেন? উত্তরে তিনি নিজের এবং মিশাল কৃপালনীর ছবি দেন। সেই সঙ্গে ছবিতে ট্যাগও করে দেন মিশালকে।

আমির খান তার বহু দিনের প্রেমিকা রীনা দত্তকে বিয়ে করেন ১৯৮৫ সালে। আর ইরার জন্ম ১৯৯৭ সালে। ২০০২ সালে ভেঙে যায় আমির-রিনার ১৬ বছরের দাম্পত্য। ২০০৫ সালে কিরণ রাওকে বিয়ে করেন আমির। আমির এবং কিরণ, দু’জনের সঙ্গেই ইরা এবং তার বড় ভাই জুনেইদের সম্পর্ক বেশ ভাল।

ইরার কাছে ফ্যাশন হল- নতুন আবিষ্কারের পথ। তার ফটোশুট সেই দিশাই দেখায়। এর আগের ফটোশুটে তিনি বেছে নিয়েছিলেন বোহেমিয়ান লুক। কিছুটা গথিক, কিছুটা ভয়ার্ত সেই লুকও জনপ্রিয় হয়েছিল নেটিজেনদের মধ্যে।

শোনা গিয়েছিল, তিনি ভবিষ্যতে ছবি পরিচালনায় আসতে চান। তবে তাঁর সাম্প্রতিক ফোটোশুট উস্কে দিয়েছে অভিনয়ে আসার সম্ভাবনাও। তবে ইরা নিজে জানিয়েছিলেন তিনি সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক হতে চান।

ছাত্রী হিসেবেও ইরা মেধাবী ছিলেন। মুম্বাইয়ের ধীরুভাই ইন্টারন্যাশনাল স্কুল থেকে ৮৯ শতাংশ নম্বর পেয়ে আইএসসি পরীক্ষায় পাশ করেন।

ঘনিষ্ঠ মহল থেকে শোনা যায়, ইরা খুব টমবয়িশ ছিলেন। তবে এখন তার রূপ ও ক্যারিশ্মায় মুগ্ধ বলিউড। পশুপ্রেমী ইরা খেলাধূলাতেও আগ্রহী। জানা গেছে, ইরার এ ফটোশুটগুলো ট্রেলার মাত্র। পর্দায় তার আগমনের অপেক্ষায় অনুরাগীরা।

সূত্র-আনন্দবাজার।

মতামত দিন

Post Author: newsdesk

A thousand enemies is not enough; a single enemy is. There is nothing as a ‘harmless’ enemy.