ইউরোপে ৮ হাজার কোটি ইউরো বিনিয়োগ করছে ইন্টেল

71


চিপ উৎপাদনের সক্ষমতা বাড়াতে আগামী এক দশকে ইউরোপে ৮ হাজার কোটি ইউরো বিনিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট ইন্টেল। সেই সঙ্গে আয়ারল্যান্ডের গাড়ি উৎপাদনকারীদের জন্য চিপ উৎপাদন কেন্দ্র স্থাপনের কথাও জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। খবর: রয়টার্স।

মিউনিখের আইএএ অটো শোতে বক্তব্য প্রদানের সময় ইন্টেলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা প্যাট জেলসিঙ্গার এ কথা জানান। এর পাশাপাশি চলতি বছরের শেষ নাগাদ প্রতিষ্ঠানটি নতুন দুটি চিপ উৎপাদন কেন্দ্র স্থাপনের বিষয়ে তথ্য প্রকাশ করবে।

নতুন চিপ উৎপাদন কেন্দ্র স্থাপনে সম্ভাব্য স্থানের তালিকায় এগিয়ে আছে জার্মানি ও ফ্রান্স। অন্যদিকে পোল্যান্ডে ইন্টেলের উপস্থিতি আগে থেকে থাকলেও নতুন উৎপাদন কেন্দ্র স্থাপনের তালিকায় রয়েছে দেশটি।

ইন্টেলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) বলেন, আগামী এক দশকের জন্য ৮ হাজার কোটি ইউরো বিনিয়োগের যে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে, সেটি প্রযুক্তি জগৎ ও চিপ উৎপাদনকারী শিল্পের জন্য অন্যতম প্রভাবক হিসেবে কাজ করবে। এর আগে গত মার্চে ইন্টেল বহিরাগতদের ব্যবহারের জন্য তাদের চিপ উৎপাদন কেন্দ্র উন্মুক্ত করে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছিল।

এপ্রিলে রয়টার্সকে দেয়া এক সাক্ষাত্কারে জেলসিঙ্গার জানিয়েছিলেন, প্রতিষ্ঠানটি আগামী ছয় থেকে নয় মাসের মধ্যে গাড়ি নির্মাতাদের জন্য চিপ উৎপাদন করতে চায়। কেননা চিপ সংকটের কারণে বিশ্বজুড়ে গাড়ির উৎপাদন মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

জেলসিঙ্গার বলেন, বর্তমানে গাড়িগুলো টায়ারসহ কম্পিউটারে পরিণত হচ্ছে। আপনাদের যেমন আমাদের প্রয়োজন, তেমনি আমাদেরও আপনাদের প্রয়োজন। আমাদের লক্ষ্য ইউরোপের জন্য ইউরোপের অভ্যন্তরে উদ্ভাবন কেন্দ্র স্থাপন করা।

গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো যেন ইন্টেল ১৬ চিপ উৎপাদন প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে চিপ উৎপাদন সম্পর্কে জানতে পারে সে লক্ষ্যেই কাজ করবে ইন্টেলের ফাউন্ড্রি সার্ভিসেস এক্সিলারেটর। এর ব্যবহার শেষে প্রতিষ্ঠানগুলোকে ইন্টেল ৩ ও ইন্টেল ১৮এ প্রযুক্তিতে নিয়ে যাওয়া হবে।

বর্তমান সময়ে গাড়ি উৎপাদন খাতে যে প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়ে থাকে সেগুলোর তুলনায় ইন্টেলের নতুন উৎপাদন প্রযুক্তি সর্বাধুনিক হবে বলে ইন্টেল সূত্রে জানা গেছে। ইন্টেল জানায়, বিএমডব্লিউ, ফক্সওয়াগন, ডেইমলার এবং বশের মতো প্রতিষ্ঠান তাদের এ প্রোগ্রামের বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তবে এসব প্রতিষ্ঠান ইন্টেলের গ্রাহক হবে কিনা সে বিষয়ে ইন্টেল আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি।

এদিকে সাম্প্রতিক বিভিন্ন প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, ২০২২ সালেও চিপের ক্রমবর্ধমান মূল্য অব্যাহত থাকবে। কেননা বিশ্বের বড় বড় চুক্তিভিত্তিক চিপ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের উৎপাদন খরচ বাড়াচ্ছে। এর ফলে অ্যাপল ও তাদের চিপ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান টিএসএমসি প্রভাবিত হবে।

তাইওয়ান সেমিকন্ডাক্টর ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি (টিএসএমসি) মূলত অ্যাপল, এনভিডিয়া ও কোয়ালকমের জন্য চিপ উৎপাদন করে থাকে এবং তাদের উৎপাদন খরচ অন্য প্রতিদ্বন্দ্বীদের তুলনায় ২০ শতাংশ বেশি। নিক্কেই এশিয়া ও নাইনটুফাইভের প্রতিবেদন অনুযায়ী, চিপ স্বল্পতার কারণে টিএসএমসির প্রতিদ্বন্দ্বী বেশকিছু প্রতিষ্ঠানও এখন অধিক অর্থ আদায় করছে। বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটি এক দশকের হিসাবে সবচেয়ে বড় মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে যাচ্ছে। এর ফলে অনেক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান মারাত্মকভাবে প্রভাবিত হবে।সূত্র:বনিকবার্তা





Source link