আফগানিস্তানে ভূমিকম্প: মৃত্যু বেড়ে হাজারে

18


আন্তর্জাতিক ডেস্ক

আফগানিস্তানে ৬ দশমিক ১ মাত্রার ভূমিকম্পে প্রাণহানির সংখ্যা বেড়েই চলেছে। সবশেষ পাওয়া খবর বলছে, ওই ভূমিকম্পের অভিঘাতে নিহতের সংখ্যা এক হাজারে পৌঁছেছে। আহত হয়েছেন দেড় হাজার। তালেবানের এক মুখপাত্রের বরাতে এ খবর জানিয়েছে বিবিসি।

প্রত্যন্ত পাহাড়ি এলাকাগুলো থেকে এখনো ভূমিকম্পে হতাহতদের তথ্য আসছে। ফলে প্রাণহানি আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন উদ্ধারকারীরা।

এর আগে, বুধবার (২২ জুন) স্থানীয় সময় ভোরে আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলের কিছু অংশ এবং পাকিস্তানেরও কিছু অংশে ভূমিকম্প আঘাত হানে।

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা (ইউএসজিএস) জানিয়েছে, ৬ দশমিক ১ মাত্রার ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল আফগানিস্তানের দক্ষিণ-পূর্ব দিকে অবস্থিত খোস্ত শহর থেকে প্রায় ৪৪ কিলোমিটার দূরে এবং ভূমি থেকে ৫১ কিলোমিটার গভীরে।

আরও পড়ুন: আফগানিস্তানে ভূমিকম্পে নিহত ৯৫০ ছাড়িয়ে

ভূমিকম্পের কিছু সময় পরই আড়াইশ প্রাণহানির তথ্য পাওয়া গিয়েছিল। এরপর থেকে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বিভিন্ন এলাকা থেকে খবর আসতে শুরু করলে নিহতের সংখ্যা বাড়তে থাকে।

তালেবান নেতা হিবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা জানিয়েছেন, শত শত ঘরবাড়ি ভেঙ্গে গেছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়বে।

গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে দেখা গেছে, ভূমিকম্প যেসব অঞ্চলে আঘাত হেনেছে, সেসব অঞ্চলের বেশিরভাগ ঘরবাড়িই একদম গুঁড়িয়ে গেছে। ধ্বংসস্তূপের নিচে অনেক মরদেহও পড়ে থাকতে দেখা গেছে। এ পরিস্থিতিতে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেছে দেশটির বিভিন্ন বাহিনী।

আফগানিস্তানের বুধবারের এই ভূমিকম্প ২০০২ সালের পর থেকে এখন পর্যন্ত সময়ের ভয়াবহতম ভূমিকম্প। উৎপত্তিস্থল থেকে প্রায় ৫০০ কিলোমিটার দূর পর্যন্ত আফগানিস্তান, পাকিস্তান ও ভারতের প্রায় ১২ কোটি মানুষ এর কম্পনে প্রকম্পিতি হয়েছেন। পাকিস্তানের পেশওয়ার, ইসলামাবাদ, লাহোর, মোহমান্দ, কোহাট, সোয়াট, বুনার এবং পাঞ্জাব ও খায়বার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের অনেক এলাকায় তীব্রভাবে অনুভূত হয়েছে এই ভূমিকম্প।

সারাবাংলা/একেএম





Source link