অভিশংসন শুনানি: উতরে গেলেন ট্রাম্প

0
92

ওয়াশিংটন, ১৪ ফেব্রুয়ারি – একমাত্র মার্কিন প্রেসিডেন্ট দুইবার অভিশংসনের মুখোমুখি হয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত অভিশংসন শুনানি থেকে মুক্তি পেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট। তার বিরুদ্ধে ক্যাপিটল দাঙ্গায় উসকানি দেয়ার অভিযোগ ছিল।

পাঁচ দিনের এই শুনানিতে ট্রাম্পের বিরোধীপক্ষ ডেমোক্র্যাটদের (বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের দল) অভিযোগ ছিল, গত বছরের নভেম্বরে অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হেরে গিয়ে ফল বাতিলের উদ্দেশ্যে মার্কিন কংগ্রেসে হামলা চালানোর জন্য সমর্থকদের উসকে দিয়েছেন ট্রাম্প। এর মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট হিসেবে নেয়া শপথ ভঙ্গ করেছেন তিনি। তবে ৫৭-৪৩ ভোটে এ শুনানি শেষ হয়েছে। দোষী সাব্যস্ত করার জন্য ট্রাম্পের বিপক্ষে অন্তত ৬৭টি ভোটের প্রয়োজন ছিল।

আরও পড়ুন : গুয়ানতানামো বে’ কারাগার বন্ধ হচ্ছে

এই অভিশংসন শুনানিতে অংশ নেয়া ৭ জন রিপাবলিকান প্রতিনিধি ট্রাম্পের বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন। তবুও দোষী সাব্যস্ত করার জন্য প্রয়োজনীয় এক-তৃতীয়াংশ ভোট না পড়ায় বেঁচে যান ট্রাম্প।

গত ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল ভবনে হামলা চালায় ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থকরা। সে ঘটনায় এক পুলিশ কর্মকর্তাসহ পাঁচজন নিহত হন। হামলাকারীদের ভয়ে অফিসকক্ষে লুকিয়ে ছিলেন সেখানে কর্মরত ব্যক্তিরা।

এ হামলায় উসকানির দায়ে তাকে অভিশংসনের মুখোমুখি হতে হয়। যদিও ট্রাম্পের পক্ষ থেকে শুরু থেকেই এ অভিযোগ অস্বীকার করা হচ্ছিল। এই প্রক্রিয়াকে ক্ষমতাসীন ডেমোক্র্যাটদের ‘রাজনৈতিক নাটক’ হিসেবেও আখ্যা দিয়েছিলেন ট্রাম্পের আইনজীবীরা।

এর আগে ২০১৯ সালে হাউজ অব রেপ্রেজেন্টেটিভে অভিশংসঅভিসংশনের মুখোমুখি হন ট্রাম্প। সেবারও ভোটাভুটিতে রক্ষা পেয়েছিলেন তিনি। তখন তার বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতার অপব্যবহার এবং কংগ্রেসের কার্যক্রমে বাধা দেয়ার অভিযোগ ছিল।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ১৪ ফেব্রুয়ারি

Source link