অফলাইনেও ব্য়বহার করা যাবে Google ড্রাইভ! কিন্তু কী ভাবে?

66


#নয়াদিল্লি: নতুন আপডেট আসছে গুগল ড্রাইভে (Google Drive)। এতদিন পর্যন্ত শুধুমাত্র অনলাইন থাকলে তবে গুগল ড্রাইভ অ্য়াকসেস করা যেত। কিন্তু এবার তাতে আসছে পরিবর্তন। অফলাইনেও অ্য়াকসেস করা যাবে গুগল ড্রাইভ (Google Drive Offline)।

বর্তমানে নেট ব্য়বহারকারীর বেশিরভাগই গুরুত্বপূর্ণ তথ্য় ও ফাইল সেভ করে রাখেন গুগল ড্রাইভে। তাতে সুবিধা বেশ কিছুটা বেশি। কারণ কোনও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য় পাওয়ার জন্য় কম্পিউটার বা হার্ড ডিস্ক বা পেন ড্রাইভ ব্য়বহার করার প্রয়োজন নেই। কারণ যে কোনও ডিভাইস থেকে ড্রাইভের অ্য়াকসেস করা সম্ভব। তাই তথ্য় সঞ্চয় করে রাখার জন্য় এটাই এখন অনেকের কাছে সবথেকে প্রিয়।

কিন্তু ডিভাইসে নেট না থাকলে গুগল ড্রাইভের অ্য়াকসেস করা সম্ভব হতো না। এবার সেই সমস্য়ার সমাধান করেছে সংস্থাটি। একটি ব্লকে তারা জানিয়েছে, অফলাইনে থাকলেও ড্রাইভে রাখা PDF, অফিস ডকুমেন্ট এবং ফটো অ্য়াকসেস করতে পারবে ব্য়বহারকারীরা। তবে সেক্ষেত্রে যে যে ফাইল গুলি অফলাইনে ব্য়বহার করতে ইচ্ছুক সেই সব ফাইলগুলির অফলাইন মোড অন করে রাখতে হবে। ২০১৯ সাল থেকে এই প্রযুক্তিটি বেটা ভার্সনে শুরু করেছিল। এবার সকলেই ওই অফলাইন মোড ব্য়বহার করতে পারবে।

Google ড্রাইভ অফলাইন মোডের জন্য় Mac এবং Windows-এর ক্ষেত্রে ডেস্কটপ অ্য়াপ ডাউনলোড করতে হবে। তার পর যে ফাইলগুলির অফলাইন অ্য়াকসেস প্রয়োজন সেগুলির ক্ষেত্রে অফলাইন অপশন অন রাখতে হবে।

এর ফলে ডেস্কটপে নেট কানেকশন না থাকলেও ওই নির্দিষ্ট ফাইলগুলি অফলাইন অ্য়াকসেস করতে পারবেন ব্য়বহারকারীরা। যেহেতু এখন সম্পূর্ণভাবে এই ফিচারটি লঞ্চ করা হয়েছে তাই সব Google ব্য়বহারকারী এই ফিচারটির সুবিধা পাবেন। ফিচারটি আপডেট করা হয়েছে Cloud Identity Premium, G Suite Basic-এ। পার্সোনাল অ্য়াকাউন্টেও এই সুবিধা পাওয়া যাবে।

যে কোনও ব্য়বহারকারী ১৫ GB ফ্রি স্টোরেজ দেয় গুগল। এর চেয়ে অতিরিক্ত প্রয়োজন হলে তা কিনতে হবে ব্য়বহারকারীকে। সেক্ষেত্রে ১০০ GB স্পেস কিনতে প্রতিমাসে ১৩০ টাকা চার্জ নেয় সংস্থাটি। এর থেকে বেশি স্পেস প্রয়োজন হলে ২TB স্পেস কিনতে পারে ব্য়বহারকারীরা। সেক্ষেত্রে প্রতিমাসে ৬৫০ টাকা করে চার্জ দিতে হবে ব্য়বহারকারীকে।

গুগল ড্রাইভ ব্য়বহারকারীরা যেমন যে কোনও জায়গা ও যে কোনও ডিভাইস থেকে নিজেদের তথ্য় অ্য়াকসেস করতে পারে তেমনই তথ্য় থাকে সুরক্ষিত। গুগল নিজস্ব সিকিউরিটি সিস্টেমের মাধ্য়মে ব্য়বহারকারীদের যাবতীয় তথ্য় সুরক্ষিত রাখে।



Source link