অনুশীলন শুরুর দিনেই ১১ জন আইসোলেশনে -Deshebideshe

0
82

ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর- শ্রীলঙ্কা সফর এখনো নিশ্চিত নয়। তবে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। রোববার দুপুর থেকে জৈব সুরক্ষিত বলয়ের মধ্যে শুরু হয়েছে টাইগারদের প্রস্তুতি ক্যাম্প। ক্যাম্পের জন্য ২৭ সদস্যের দল করেছে বিসিবি। এদিনই হোটেলে উঠেছেন খেলোয়াড়রা।

টাইগাররা মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে অনুশীলন শুরু করেন দুপুর পৌনে তিনটা থেকে। ‘স্কিল ট্রেনিং’ বলা হলেও এটা শ্রীলঙ্কা সফরেরই প্রাথমিক প্রস্তুতি। আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর বাংলাশে দলের শ্রীলঙ্কার বিমান ধরার কথা। বিসিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ২৭ ক্রিকেটারের মধ্যে দুজন ‘বর্ডারলাইন নেগেটিভ’ শনাক্ত হয়েছে। তাদের সহচযার্যে থাকা ১১ জনকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।  তারা হলেন-সাইফ হাসান, হাসান মাহমুদ, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, আবু জায়েদ রাহি, শফিউল ইসলাম, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, এবাদত হোসেন, নাঈম হাসান, মোহাম্মদ মিঠুন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও নাজমুল হোসেন শান্ত।

২২ তারিখ আবারও তাদের করোনা পরীক্ষা করানো হবে। স্কিল ট্রেনিংয়ের প্রথম দিন শেষে কথা বলেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বাংলাদেশের অভিজ্ঞ এই অলরাউন্ডার উৎফুল্ল। দলগত অনুশীলন করতে পেরে খুশি তিনি। বলেছেন, ‘লকডাউনের সময়টা খুবই কঠিন ছিল। বাসায় থেকে যতটুকু পারা যায় রানিং বা জিম করার চেষ্টা করেছি। এতদিন ব্যক্তিগত অনুশীলন করেছি এখন আমরা দলবদ্ধ অনুশীলন শুরু করেছি। এটা ভালো।’

মাহমুউল্লাহ জানান, এখন তিনি স্কিলের কাজগুলো করছেন। কারণ দিনশেষে স্কিলটাও গুরুত্বপূর্ণ। বলেন, ‘ফিটনেস ও স্কিল দুটো মিলিয়েই ভালো পারফরম্যান্স করতে হবে।’

করোনা ভাইরাসের কারণে চার মাস ঘরবন্দী ছিলেন ক্রিকেটাররা। জুলাই থেকে আবারো ক্রিকেট চর্চা শুরু হয় দেশে। বিসিবির তত্তাবধানে জাতীয় দলের কয়েকজন ক্রিকেটার একক অনুশীলন শুরু করেন। কোরবানীর ঈদের পর সে সংখ্যাটা বাড়ে। এরই মাঝে শ্রীলঙ্কা সফর নিশ্চিত হলে বিসিবির ব্যস্ততা বেড়ে যায়। শ্রীলঙ্কা সফর সামনে রেখে পরিকল্পনা সাঁজাতে থাকে বোর্ড। যদিও সম্প্রতি হুমকির মুখে পড়েছে বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফর।

আরও পড়ুন: শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড থেকে ইতিবাচক সাড়া পেয়েছে বিসিবি

দ্বীপরাষ্ট্রে পৌঁঁছানোর পর টাইগারদের ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে এমনটাই চাইছে ক্রিকেট শ্রীলঙ্কা। এটা সে দেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রনালয় থেকে বলা হয়েছে । কিন্তু বিসিবি তাতে রাজি নয়। আর এ নিয়েই সমস্যা বেধেছে। যদিও এসএলসি স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়কে কোয়ারেন্টিন শিথিল করার জন্য অনুরোধ করেছে। ধারণা করা হচ্ছে, ইতিবাচক একটা সিদ্ধান্তই আসবে এবং নির্ধারিত সময়েই টাইগাররা শ্রীলঙ্কার উদ্দ্যেশে উড়াল দেবেন।

মুমিনুল, তামিমরাও এখন সফর সামনে রেখেই ক্যাম্পে অংশ নিয়েছেন। করোনা পরবর্তী দলগত অনুশীলন প্রসঙ্গে মাহমুউল্লাহ বলেন, ‘সতীর্থদের সঙ্গে কাজ করছি। ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করা হচ্ছে। সতীর্থরাও বেশ উৎফুল্ল এবং আমিও। কারণ দিনশেষে এটা একটা দলীয় খেলা, দলের সবার সাথে মিলে অনুশীলনটা যি উপভোগ করা যায় ওটা আরও বেশি কার্যকর হয় নিজের জন্য ও সতীর্থদের জন্য।’

সূত্র : আমাদের সময়
এম এন  / ২০ সেপ্টেম্বর

Source link