breaking news New

হাটহাজারীতে মধ্যযুগীয় কায়দায় রশি দিয়ে জ্যাঠাকে বেঁধে পিটুনি দিল আপন ভাইপো

গরুর ঘাস খাওয়ার জের

তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে হাটহাজারীর ধলই ইউনিয়নে মধ্যযুগীয় কায়দায় রশি দিয়ে বেঁধে ৬০বছর বয়সী আপন জ্যাঠাকে পিটুনি দিয়েছে আপন ভাইপো। শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে ইউনিয়নের পশ্চিম ধলই হিম্মৎ চৌধুরী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। হতভাগ্য এই বৃদ্ধের নাম মো. হাসেম। গুরুতর আহত অবস্থায় হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে হাসেম তার গরুর জন্য পার্শ্ববর্তী জমি থেকে ঘাস কাটেন। এসময় তার আপন ছোটভাই কাশেমের গরু ওই ঘাস খেয়ে ফেলে। এ নিয়ে হাসেম গালমন্দ করলে তার ছোট ভাইয়ের পরিবারের সদস্যদের সাথে বাকবিত-া সৃষ্টি হয়। দুই পুত্র প্রবাসে ও অসুস্থ স্ত্রী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় হাসেমকে একা পেয়ে শুক্রবার সকালে কাসেমের পুত্র সাগর(২৩), সজীব(১৮) তার উপর হামলা চালায়। এসময় তারা হাসেমকে মাটিতে ফেলে গরুর রশি দিয়ে হাত-পা ও কোমর বেঁধে উপর্যুপরী কিল-ঘুষি ও লাত্থি দিতে থাকে। স্থানীয়রা রক্তাক্ত ও সংজ্ঞাহীন অবস্থায় তাকে দ্রুত উদ্ধার করে হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পরও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় পরে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

হাসেমের আপন অপর ছোট ভাই বাবু বলেন,‘ একা পেয়ে আমার বড় ভাইকে অপর ভাইয়ের ছেলেরা রশি দিয়ে বেঁধে পিটুনি দিয়েছে। এ ঘটনায় তার পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।’

হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যেল অফিসার ডাক্তার মাহতাব জানান, ‘ সংজ্ঞাহীন ও রক্তাক্ত অবস্থায় হাসেম নামক এক বৃদ্ধকে আমাদের কাছে নিয়ে আসা হয়েছে। আমরা স্যালাইন পুস করে উন্নত চিকিৎসার জন্য চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেছি।

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register