স্বল্প আয়ের মানুষের জন্য রেশনিং ব্যবস্থা চালুর আহ্বান ন্যাপ’র

0
142

দেশে মহামারী করোনার প্রাদুর্ভাব রোধ করতে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি চলছে। মানুষ গৃহবন্দি অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে। আর এই সুযোগে এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ীরা নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি করছে। অন্যদিকে স্বল্প আয়ের শ্রমজীবী মানুষেরা এসময় কর্মহীন হয়ে পড়েছে। ফলে সাধারন মানুষের দিন কাটানো কঠিন হয়ে পড়ছে। এই সাধারণ স্বল্প আয়ের মানুষের জন্য ‌দ্রুত রেশনিং ব্যবস্থা গ্রহন করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ।

রবিবার (২৯ মার্চ) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিববৃতিতে পার্টির চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া এ দাবী জানান।

তারা বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রমণে গোটা বিশ্বসহ বাংলাদেশ স্থবির হয়ে পড়েছে। এদিকে দেশের মানুষ যখন করোনাভাইরাসের কবল থেকে নিজেদের জীবন বাঁচাতে পরিবার-পরিজন নিয়ে উদ্বেগ আর উৎকন্ঠার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন, তখন এদেশেরই কিছু সুযোগ সন্ধানী অসাধু ব্যবসায়ী নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি করে লুটপাটে ব্যস্ত হয়ে উঠেছে। জাতির এই ক্রান্তিলগ্নে এ ধরনের আচরন অত্যন্ত বেদনাদায়ক ও নিচু মানসিকতার পরিচয় বহন করে।

নেতৃদ্বয় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কর্তৃক খুবই দ্রুত দেশের সল্প আয়ের শ্রমজীবী মানুষদের রেশনিং ব্যবস্থা করাসহ সর্বত্র ব্যাপক মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ এবং অতিরিক্ত পণ্য ক্রয়কারীদের বিরুদ্ধেও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার আহ্বান জানান।

তারা বলেন, দেশের এই বিরাজমান পরিস্থিতিতে ওই মানুষরূপি বিবেকহীন দানবগুলোর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা সময়ের দাবিতে পরিনত হয়েছে।