breaking news New

সুন্দরী মেয়েদের মন পাওয়ার সহজ উপায় জানেন কি? জেনে নিন

বিনোদন ডেস্ক: সুন্দরকে কে না ভালোবাসে। সবাই চায় সুন্দর কিছুটা যেন তার হোক। নারীদের ক্ষেত্রেও একই। প্রায় পুরুষই চায় তার সঙ্গী দেখতে সুন্দর হোক। সে জন্য ভালো লাগার মানুষের মন জয় করতে কত কিছুই না করে থাকেন তারা। কিন্তু প্রায় দেখা যায় তাদের সেই শ্রম পণ্ড হয়ে যায়। তবে একটু টেকনিক্যাল হলে বিষয়টি সহজ হয়ে যায়। নারীদের মন জয় করার জন্য একদল গবেষক কিছু উপায় বের করেছেন। আসুন জেনে নেয়া যাক সেগুলো:

ভালবাসার প্রথম শর্ত হল প্রিয় মানুষটার কাছে সৎ থাকা। তার কাছে কোনো কিছুই গোপন করা যাবে না। আত্মবিশ্বাসী হতে হবে। মেয়েরা আত্মবিশ্বাসী ও ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন পুরুষদের পছন্দ করে। রূপের প্রশংসা করবেন না। সুন্দরী নারী মাত্রই নিজের রূপের প্রশংসা শুনে অভ্যস্ত। এত বেশি অভ্যস্ত যে ব্যাপারটা তাদের কাছে অনেক সময়ই বিরক্তিকর হয়ে ওঠে। তাই তাদের মনোযোগ পেতে চাইলে প্রথমেই তার সৌন্দর্যের প্রশংসা কড়া বাদ দিন। এই ব্যাপারটি তিনি অবশ্যই লক্ষ্য করবেন এবং জানতে আগ্রহী হবেন যে আপনি সবার মত তার রূপের প্রশংসা কেন করছেন না!

মেয়েরা হাস্য-রস পছন্দ করে। যেসব ছেলেরা তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হাসি তামাশা করতে পারে, মেয়েরা ওইসব ছেলেদের পছন্দ করে।
মেয়েরা পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা ও ফিটফাট থাকতে পছন্দ করে। মেয়েরা চায় তার ভালোবাসার মানুষটি সব সময় কেতাদুরস্ত থাকুক।
আর্থিক সচ্ছলতা প্রদর্শন করুন। সুন্দরীরা মনে করেন একজন ধনী পুরুষ পাবার সমস্ত যোগ্যতাই তাদের আছে। ধনী না হলে খুব কম ক্ষেত্রেই সুন্দরীদের নজরে পড়া যায়।

তাদের প্রতি অতি আগ্রহ প্রকাশ করবেন না। আগ বাড়িয়ে কিছুই করতে যাবেন না। প্রিয়তমাকে তার দুর্বলতার কথা তুলে রাগানো যাবে না। মনে রাখবেন প্রত্যেক নারী প্রত্যেক নারী তার প্রিয়জনের কাছ থেকে সর্বোচ্চ ভালবাসা পেতে চায়। নারী চায় তার প্রিয় মানুষ তার প্রতি যত্নবান হোক।

★★★ভালো প্রেমিকা হতে চান? জেনে রাখুন এই ৩টি কৌশল!

আপনি কি পাগলের মতো কোনো পুরুষকে ভালোবাসতে শুরু করেছেন? তাঁকেই কি মনে করছেন আপনার ‘মিস্টার পারফেক্ট’? এমন হলে তাঁকে হারানোর আগে তিনটি কৌশল শিখে নিন। এ তিনটি কৌশল আপনাকে তাঁর কাছে মূল্যবান করে তুলবে। আর আপনি হয়ে উঠবেন একজন ভালো প্রেমিকা।

১. তাঁর পছন্দের প্রতি আগ্রহ দেখান: আপনার বয়ফ্রেন্ড বা প্রেমিকের শখ বা পছন্দগুলো জানুন। তাঁর কোনো বিষয়ের প্রতি অতি আগ্রহ থাকলে সে বিষয়ে আপনিও উৎসাহ প্রকাশ করুন। যেমন : তিনি হয়তো সঙ্গীত খুব পছন্দ করেন বা তিনি হয়তো ক্রিকেট পছন্দ করেন, তাহলে সেসব বিষয়ে আপনিও আগ্রহ দেখান এবং তাঁকে কাজটি করতে প্রেরণা দিন। এতে কেবল ভালোবাসা নয়, আপনার প্রতি তাঁর শ্রদ্ধাবোধও তৈরি হবে।

২. তাঁর প্রশংসা করুন: প্রশংসা শুনতে কার না ভালো লাগে? তবে সেই প্রশংসা হতে হবে একটু কৌশলে, যেন বিষয়টি বাড়াবাড়ির পর্যায়ে না যায়। তাঁর অনেক গুণ ও ভালো দিক রয়েছে সেটি তাঁকে মনে করিয়ে দিন। এই প্রশংসা তাঁর আত্মবিশ্বাসকে বাড়াতেও কাজ করবে।

৩. তাঁর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে মিশুন: হয়তো আপনি আপনার প্রেমিকের মা-কে তেমন পছন্দ করেন না। তবে প্রেমিকটি আপনার কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ। আর প্রেমিকের পছন্দের মানুষ তাঁর মা। তাহলে তাঁর মায়ের সঙ্গে প্রচুর সময় কাটান। তাঁর সুবিধা-অসুবিধাগুলো জিজ্ঞেস করুন। সম্ভব হলে সেগুলো সমাধানের চেষ্টা করুন। প্রেমিকের পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোও কিন্তু তাঁর কাছে আপনাকে শ্রেষ্ঠ করে তুলবে।

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register