সন্তানের দায়িত্ব নেব, অপুর নয়: শাকিব

চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসকে বিয়ে করার কথা স্বীকার করলেন চিত্রনায়ক শাকিব খান। স্বীকার করলেন ছেলে আব্রাহাম খান জয়ের কথাও। তবে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে অপু বিশ্বাস হাজির হয়ে সরাসরি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিয়ে আর সন্তানের কথা বলায় নাখোশ হয়েছেন তিনি।

অপু বিশ্বাস যখন সরাসরি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শাকিবের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের কথা জানাচ্ছিলেন, তখন রাজধানীর একটি হোটেলে শরীর চর্চায় ব্যস্ত ছিলেন শাকিব খান। সেখান থেকে তিনি কথা বলেন প্রথম আলোর সঙ্গে। অপুর আচরণে ক্ষুব্ধ শাকিব জানালেন, ‘সন্তানের দায়িত্ব নেব। অপুর দায়িত্ব নেব না।’ অপু বিশ্বাস তাঁকে অসম্মান করেছেন বলে দাবি করেন তিনি।

শাকিবের দাবি, এটি তাঁর ক্যারিয়ার ধ্বংস করার জন্য এটা চক্রান্ত। বিয়ের কথা এত দিন গোপন রাখার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ব্যক্তিগত জীবন সামনে আনতে চাইনি। এখন সে (অপু বিশ্বাস) এনেছে। তাঁর সব চাহিদা পূরণ করেছি। যখন বলেছে টাকা দিয়েছি।’

শাকিব খান বলেন, ‘আব্রাহামের দায়িত্ব আমি নিয়ে যাব। সে আমার সন্তান। সারাজীবন তার দায়িত্ব আমি নিয়ে যাব।’

এর আগে একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে অপু বলেন, চিত্রনায়ক শাকিবের সঙ্গে বন্ধুত্বের সম্পর্ক বিয়ে পর্যন্ত গড়িয়েছে। তাঁদের একটি ছেলেও রয়েছে। তিনি বলেন, ২০০৮ সালে ১৮ এপ্রিল তাঁদের বিয়ে হয়। শাকিবের ঢাকার বাসায় এই বিয়ে হয়। পরিবারের কাছের লোকজন সেই বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন। বিয়ের সময় তাঁর নাম হয় অপু ইসলাম খান। শাকিবের ইচ্ছাতেই এত দিন বিয়ের বিষয়টি গোপন রাখা হয়েছে।

হঠাৎ উধাও হয়ে যাওয়ার ১০ মাস পর ফেরেন অপু বিশ্বাস। তিনি বলেন, এই দীর্ঘ সময়টায় তিনি ভারত, সিঙ্গাপুর ও ব্যাংককে ছিলেন। কলকাতার একটি হাসপাতালে তাঁর ছেলের জন্ম হয়, ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর। ছেলের নাম আব্রাহাম খান জয়। তিনি এসব কথা বলতে গিয়ে বারবার কান্নায় ভেঙে পড়েন। বলেন, শাকিবের ভালো চিন্তা করে তিনি সব করেছেন। অনেক ছাড় দিয়েছেন। ধৈর্য ধরতে ধরতে শেষ সীমানায় পৌঁছে গেছেন তিনি। তাই এবার সব বলছেন।

শাকিব সম্মান করেননি, বরং বারবার ছোট করেছেন বলে অপু বিশ্বাস বলেন। তাঁর ভাষায়, ‘সম্মান চেয়েছি। পাইনি। বারবার ছোট হয়েছি।’

একপর্যায়ে অপু বিশ্বাস বলেন, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর শাকিব তাঁকে বলেছেন নিজেকে লুকিয়ে রাখতে। তাই তিনি তেমনটা করেছেন। সন্তান হওয়ার সময় শাকিব তাঁর পাশে ছিলেন না। তবে ঢাকায় আসার পর সন্তানকে দেখতে যান। সন্তানের সব খরচও দেন।

অপুর এসব বক্তব্যর বিষয়ে জানতে চেয়ে প্রথম আলোর পক্ষ থেকে শাকিবের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি নানা বিষয়ে কথা বলেন।

উৎসঃ প্রথম আলো

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register