শৈলকুপায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট

ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি, ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার নিত্যানন্দনপুর ইউনিয়নের সাঁপখোলা,আশুরহাট ও কন্যেদা গ্রামে বেশ কয়েকটি বাড়িঘর রাতের আধারে ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার রাতে।
সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, ষষ্ঠ ধাপের ইউপি নির্বাচনে শৈলকূপা উপজেলার নিত্যানন্দনপুর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী মফিজ উদ্দিনের সাথে লড়াই করে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ফারুক আহমেদ বিজয়ী হন।
এর জের ধরে নির্বাচনী পরবর্তী সহিংসতায় বিজয়ী প্রার্থী ফারক আহমেদের সমর্থক সাপখোলা গ্রামের মজনু, পিরাগাতী গ্রামের রইচ মেম্বর,আমিরুল ও দিঘলগ্রামের জামালের নেতৃর্ত্বে একদল সন্ত্রাসীরা সাঁপখোলা গ্রামের স্বপন, আদিল উদ্দিন খা, মতিন, হান্নান ও আশুরহাট গ্রামের রবিউল, বদরুল আলম বাবলু এবং কন্যেদা গ্রামের দুলাল, কালাম, জামাল, কুদ্দুস এর বাড়ীতে হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীরা ১০টি বাড়ীঘর ভাংচুর, ৯টি গরু, ২টি ছাগল, ৩টি বাইসাইকেল,স্বার্ণের অলংকার ও  আসবাবপত্রসহ বেশ কিছু মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে শৈলকুপা থানার ওসি তরিকুল ইসলাম জানান, তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন। বেশ  কয়েকটি গরু উদ্ধার করা হয়েছে এছাড়া অন্যান্য লুটের মালামাল উদ্ধারের  চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় শৈলকুপা থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
 

0 Comments

Leave a Reply

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

%d bloggers like this: