শের আলীকে নিয়ে গর্বিত চট্টগ্রাম পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম :

শের আলী। বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে এখন আলোচিত নাম। দুর্ঘটনাকবলিত বাস থেকে একটি শিশুকে বাঁচাতে গিয়ে শের আলীর কান্না অনেককেই অশ্রুসজল করেছে।

শের আলী চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সদস্য। তার এমন মানবিক কাজে গর্বিত এখন চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ। শের আলীর মহৎ কর্মে প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদকের জন্য সুপারিশ করতে যাচ্ছেন চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কমিশনার ইকবাল বাহার।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কমিশনার ইকবাল বাহার বলেন, ‘শের আলীর জন্য আমরা সত্যি গর্বিত। তার মতো পুলিশ সদস্যরা বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর অহংকার। পুলিশ বাহিনী শুধুই অপরাধ দমন নয়, যে কোন মানবিক কাজেও ছুটে আসে। শের আলী এর অন্যতম উদাহরণ।

পুলিশ কমিশনার জানান, শের আলী চট্টগ্রাম নগর গোয়েন্দা পুলিশের উত্তর ও দক্ষিণ বিভাগে বোমা নিষ্ক্রিয়করণ ইউনিটে কর্মরত। তার কনস্টেবল নম্বর ২৫৪৬। আগামী জানুয়ারি মাসে পুলিশ সপ্তাহে প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদক পেতে শের আলীর জন্য পুলিশ হেডকোয়ার্টারে সুপারিশপত্র প্রেরণ করা হবে। আজ বুধবার বিকেলেই এই সুপারিশ ঢাকায় প্রেরণ করা হবে বলে পুলিশ কমিশনার জানান। এ ছাড়া নগর গোয়েন্দা পুলিশের পক্ষ থেকেও শের আলীকে পুরস্কৃত করা হবে।

চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার পরিতোষ ঘোষ বলেন, ‘শের আলী আমার অধীনে কর্মরত। সে ছুটিতে গিয়ে যে মানবিক ঘটনায় অংশ নিয়ে সারাদেশে পুলিশ বাহিনীর মুখ যেভাবে উজ্জল করেছেন তাতে আমরা গর্বিত। শের আলীকে বিভাগীয়ভাবে পুরস্কৃত করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।’ মঙ্গলবার শের আলী ছুটি শেষে কাজে যোগ দিয়েছেন বলে জানান উপ-কমিশনার।

উল্লেখ্য, গত রোববার দুপুরে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের রামু উপজেলার পানিরছড়া এলাকায় শের আলীর বাড়ির কাছাকাছি এলাকায় বাস উল্টে ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে নিহত হন ৪ জন। এই দুর্ঘটনায় একটি শিশু বাসের চাপায় আটকে থাকলে আর্তনাদরত কন্যা শিশুটিকে বাঁচাতে এগিয়ে যান শের আলী। প্রায় ঘন্টাব্যাপী চেষ্টার পর শিশুটিকে উদ্ধার করে দৌড়ে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় কান্নায় ভেঙে পড়েন শের আলী। এই ছবি ফেসবুকের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে সারাদেশে।

 

 

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register