শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বাড়ছে ছুটির মেয়াদ

0
101

করোনাভাইরাসের কারণে প্রাক্-প্রাথমিক থেকে উচ্চশিক্ষা পর্যন্ত দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটির মেয়াদ আরও দীর্ঘ হচ্ছে। আগামী রমজানের ছুটি পর্যন্ত এই মেয়াদ বাড়ানোর চিন্তাভাবনা করছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্রে এমন পরিকল্পনার তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানিয়েছে, রমজান মাসে এমনিতেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি থাকে। পরিস্থিতি বিবেচনায় রজমানের ছুটির বিষয়ে ভিন্ন কোনো সিদ্ধান্ত না হলে ঈদুল ফিতর পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি থাকবে। তবে সিদ্ধান্ত এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা বলে আজ মঙ্গলবারই ছুটির বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

আর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব মো. আকরাম আল হোসেন বলেছেন, ‘৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি হওয়ায় এমনিতেই তখন পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও ছুটি থাকবে। এর পরের বিষয়ে কী করা যায়, সেটা নিয়ে আলোচনা চলছে। দেখা যাক।’

এর আগে ১৬ মার্চ দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টার ৭ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করেছিল সরকার। এরপর ১ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষাও স্থগিত করা হয়।

সবশেষ সিদ্ধান্ত অনুসারে, ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি-বেসরকারি অফিসে টানা ১০ দিনের ছুটিতে থাকছে। ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস এবং পরের দুদিন শুক্র ও শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি। ২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পাঁচদিন সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। আর ৩ ও ৪ এপ্রিল সাপ্তাহিক ছুটি হওয়ায় মোট ১০ দিনের ছুটিতে থাকবে সারা দেশ।

এ ছাড়া পরিস্থিতি মোকাবিলায় বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা দিতে আজ মঙ্গলবার থেকে দেশের বিভাগীয় ও জেলা শহরগুলোতে সশস্ত্র বাহিনী নামার কথা। গণপরিবহন সীমিত হয়ে গেছে। এমন পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটির মেয়াদ বাড়ানো হচ্ছে।

করোনাভাইরাসের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সংসদ টেলিভিশন চ্যানেলের মাধ্যমে সেরা শিক্ষকদের রেকর্ডিং করা ক্লাস প্রচারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)। আগামী তিন মাসের পরিকল্পনা নিয়ে তারা এই কাজটির উদ্যোগ নিয়েছে। প্রাথমিকেও বিকল্প উপায়ে ক্লাস নেওয়ার আলোচনা চলছে।