শহরের যানজট নিরষণে পৌরসভার নানামুখি পদক্ষেপ

মোঃ সাইফুল উদ্দীন, রাঙামাটি: রাঙামাটির শহরের যানজট নিরসণে ও সিএনজি পাকিং স্টেশন নির্মাণের জন্য বন বিভাগের সীমানা প্রাচির ভেঙ্গে রাস্তা প্রসস্থর কাজ শুরু করেছে রাঙামাটি পৌরসভা।

শহরের বনরুপা চার রাস্তার মোড় হলো ব্যস্ততম স্থান। এখানে প্রায় সময় বিভিন্ন সিএনজি ও ভারি যানবাহন পাকিং করা হতো। যার ফলে সব সময় যানজট লেগেই থাকতো। এতে করে ভোগান্তি পোহাতে হতো জনসাধারণকে। এই কথা চিন্তার করে রাঙামাটি পৌরসভা বন বিভাগের সীমানা প্রাচির ভেঙ্গে রাস্তা প্রসস্থর মাধ্যমে জনসাধারণনের ভোগান্তি লাগবের চেষ্ঠা করছে।

এই প্রসংঙ্গে রাঙামাটি সিএনজি মালিক ও শ্রমিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মহসিন রোমান বলেন, এটা ভালো প্রদক্ষেপ। পৌরসভার এই প্রদক্ষেপকে আমরা সমর্থন করি। এছাড়া তাদের এই প্রদক্ষেপ বাস্তবায়নে আমরা সাবির্ক সাহায্য সহযোগিতা করতে প্রস্তুত।

তিনি আরো বলেন, বনরুপা ব্যস্ততম এলাকা হওয়ায় এখানের রাস্তাটি প্রসস্থকরার খুবই প্রয়োজন ছিলো। যা পৌরসভা নিজ দায়িত্বে করে দিচ্ছে। তাদের এই কাজকে সফল করা লক্ষে আমরাও কাজ করবো।

বৃহত্তর বনরুপা ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি আবু সৈয়দ বলেন, বনরুপা হচ্ছে রাঙামাটির প্রাণ কেন্দ্র। এখানে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। ফলে শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে বনরুপা প্রতি নিয়ত লোকজন আসা যাওয়া করে। এখানে চার রাস্তার মোড়ে প্রায় সময় সিএনজি ও বিভিন্ন যান বাহন পাকিং করা হতো ফলে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও মানুষের বিভিন্ন সমস্যা সৃষ্টি হতো।

তিনি আরো বলেন, পৌরসভা জনগণের এই ভোগান্তি লাগবের জন্য যে ব্যবস্থা গ্রহন করেছে তা প্রশংসনিয়। এতে করে সিএনজিসহ বিভিন্ন যান বাহন পাকিং করার সুবিধা হবে এবং রাস্তা প্রসস্থ হবে। ফলে জনসাধারণের ভোগান্তি কমবে বলে আমরাদের মনে হয়। পৌরসভার এই উদ্দ্যেগকে প্রশংসা করে তিনি বনরুপা ব্যবসীদের পক্ষ থেকে কতৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান।

রাঙামাটি পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী বলেন, রাঙামাটি শহরের ব্যবস্থতম এলাকা হচ্ছে বনরুপা। এখানে বিভিন্ন শপিংমল ও কাঁচা বাজার রয়েছে। ফলে শহরের প্রায় মানুষের আনাগোনা এখানে। শহরের বিভিন্ন স্থানে যাতাযাতের জন্য এখান থেকে সিএনজি ছাড়া হয়। ফলে সব সময় এখানে এক প্রকার যানজট লেগে থাকে। এই যানজট নিরষণে আমরা রাঙামাটি পৌরসভার পক্ষ থেকে বন বিভাগের সাথে আলোচনা করে তাদের সীমানা প্রাচির ভেঙ্গে কিছু জায়গা নিয়ে সিএনজি স্টেশন ও রাস্তা প্রসস্থ করার উদ্দ্যেগ গ্রহন করেছি। এতে করে পৌরবাসীর ভোগান্তি লাগব হবে বলে আমরা আশা করি।

Print Friendly, PDF & Email
 

0 Comments

Leave a Reply

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

%d bloggers like this: