Notice: Use of undefined constant REQUEST_URI - assumed 'REQUEST_URI' in /home/joynalbd/public_html/bdnewstimes.com/wp-content/themes/bdnewstimes/functions.php on line 73
রায় হয়নি এরশাদের দুর্নীতি মামলার – bdNewstimes.com | All Time Latest News

রায় হয়নি এরশাদের দুর্নীতি মামলার

সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলার রায়ের জন্য দিন ধার্য থাকলেও শেষ পর্যন্ত রায় দেননি হাইকোর্ট।

রাষ্ট্রপক্ষের করা আরও দুটি আপিল আবেদন বিচারাধীন থাকায় এ মামলার সকল নথি প্রধান বিচারপতির কাছে পাঠিয়ে দিয়েছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার রায়ের জন্য দিন ধার্যদ থাকলেও পরে রায় দেননি বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুসের একক বেঞ্চ।

আদালতে এরশাদের পক্ষে ছিলেন শেখ সিরাজুল ইসলাম। দুদকের পক্ষে ছিলেন খুরশীদ আলম খান।

এ বিষয়ে খুরশীদ আলম খান বলেন, আজ রায়ের জন্য নির্ধারিত ছিলো। কিন্তু রায়ের পূর্বমুহূর্তে আদালত আপিলকারীর আইনজীবীকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, এ মামলায় ১৯৯২ সালের ৫ ও ৬ নম্বর আপিল রয়েছে মর্মে দেখা যাচ্ছে। যেটা সরকার করেছে। এটা আপনি উল্লেখ করেননি। এখন একটা আপিলের ওপর রায় দেওয়া সমীচীন হবে না। তাই রায় না দিয়ে প্রয়োজনীয় আদেশের জন্য মামলার তিনটি আপিল প্রধান বিচারপতির কাছে পাঠানোর আদেশ দেওয়া হলো। ফলে প্রধান বিচারপতি এটি শুনানির জন্য নতুন কোন বেঞ্চ নির্ধারণ করে দেবেন। ওই বেঞ্চে বিষয়টি শুনানি হবে।

১৯৮৩ সালের ১১ ডিসেম্বর থেকে ১৯৯০ সালের ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত রাষ্ট্রপতি থাকাকালে বিভিন্ন উপহার রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা না দেওয়ার অভিযোগ ওঠে এরশাদের বিরুদ্ধে। এ অভিযোগে ১৯৯১ সালের ৮ জানুয়ারি তৎকালীন দুর্নীতি দমন ব্যুরোর উপ-পরিচালক সালেহ উদ্দিন আহমেদ সেনানিবাস থানায় এরশাদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলায় এক কোটি ৯০ লাখ ৮১ হাজার ৫৬৫ টাকা আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ আনা হয়।

১৯৯২ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিভাগীয় বিশেষ জজ আদালত এরশাদকে তিন বছরের কারাদণ্ড দেন। একইসঙ্গে ওই অর্থ ও একটি টয়োটা ল্যান্ডক্রুজার গাড়ি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

এ রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করেন এরশাদ। এরপর কেটে যায় দীর্ঘদিন।

২০১২ সালের ২৬ জুন সাজার রায়ের বিরুদ্ধে এরশাদের আপিলে পক্ষভুক্ত হয় মামলার বাদী দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ওইদিন আপিলে পক্ষভুক্ত হতে দুদকের আবেদন মঞ্জুর করেন বিচারপতি খোন্দকার মুসা খালেদ ও বিচারপতি আবু তাহের মো: সাইফুর রহমানের অবকাশকালীন হাইকোর্ট বেঞ্চ।

পরে দীর্ঘ দিন পর গত বছরের ২২ আগস্ট এ মামলায় আপিল শুনানির দিন ধার্যের আবেদন জানায় দুদক। আবেদনটি কয়েক দফা কার্যতালিকায় এলেও মামলার নথি না আসায় শুনানি শুরু হয়নি।

পরে গত বছরের ১ নভেম্বর শুনানির জন্য ১৫ নভেম্বর নির্ধারণ করেছিলেন আদালত। ওইদিন এরশাদের আইনজীবীর আবেদনের প্রেক্ষিতে আরও দুই সপ্তাহ সময় দিয়ে ৩০ নভেম্বর শুনানির দিন ধার্য করেন।

এরপর কয়েকদফা শুনানি শেষে গত ৯ মার্চ আদালত রায়ের জন্য আজ ২৩ মার্চ দিন ধার্য করেন।

Print Friendly, PDF & Email
 

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

%d bloggers like this: