breaking news New

রাবেয়া-রোকাইয়াকে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হচ্ছে হাঙ্গেরি

নিজস্ব প্রতিবেদক

জোড়া মাথা নিয়ে জন্ম নেওয়া পাবনার রাবেয়া-রোকাইয়াকে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হচ্ছে হাঙ্গেরি। আজ শুক্রবার রাতে রাবেয়া-রোকাইয়াসহ ছয়জন হাঙ্গেরির উদ্দেশে রওনা হবেন। সঙ্গে যাবেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের চিকিৎসক হোসাইন ইমাম।

আজ শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, চিকিৎসা শেষে সেখান থেকে ফেরার পর ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের অধীনে এই যমজ শিশুর দেশেই অস্ত্রোপচার করা হবে। এ সময় চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া অনুদান শিশুদের মা-বাবার হাতে তুলে দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

সংবাদ সম্মেলনে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বাস্তব অর্থেই মানবতার নেত্রী।’ এ সময় তিনি চিকৎসক ও রাবেয়া-রোকাইয়ার বাবা-মাকেও ধন্যবাদ জানিয়ে ওদের চিকিৎসার সাফল্য কামনা করেন।

ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের প্রধান সমন্বয়ক সামন্ত লাল সেন বলেন, বাংলাদেশ ও হাঙ্গেরির যৌথ উদ্যোগে রাবেয়া-রোকাইয়ার চিকিৎসা হবে। সেখানে হাঙ্গেরি, জার্মানি ও বাংলাদেশের পাঁচটি দলের ২০ সদস্য কাজ করবেন।

সামন্ত লাল সেন আরও বলেন, রাবেয়া-রোকাইয়া যখন হাসপাতালে ভর্তি হয় তখন বাংলাদেশে ছিল জার্মানি ও হাঙ্গেরির প্রতিনিধিদল। তখন থেকেই ওদের চিকিৎসার কার্যক্রম শুরু হয়। স্থানীয় সাংসদের মাধ্যমে শিশু দুটির অবস্থা প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত পৌঁছানো হয়। তিনি শিশু দুটির চিকিৎসায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন। ২০১৭ সালের নভেম্বরে ওদের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়।

দুই বছর সাত মাস বয়সী এ শিশু দুটির বাংলাদেশে এর আগে মস্তিষ্কের রক্তনালিতে দুবার অস্ত্রোপচার করা হয়। হাঙ্গেরি থেকে ফেরার পর দেশে শেখ হাসিনা ন্যাশনাল বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ওদের মূল অস্ত্রোপচার হবে

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register