রাজাকারের প্রকাশিত তালিকার বিভ্রান্তির দায় এড়াতে পারে না মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রী : ন্যাপ মহাসচিব

0
188

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় প্রকাশিত রাজাকারের প্রথম তালিকায় নানা অসঙ্গতি ও বিভ্রান্তির দায় এড়াতে পারে না মন্ত্রী ও মন্ত্রনালয় বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।

তিনি বলেন, রাকারের তালিকায় এমন সব ব্যক্তির নাম এসেছে, যারা সরাসরি মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছেন, লড়াই করেছেন পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর সঙ্গে। কেউ কেউ মুক্তিযুদ্ধে সংগঠকের ভূমিকা পালন করেছেন। এমনকি শহীদ পরিবারের সদস্যদের নামও রয়েছে তালিকায়। এর মাধ্যমে মন্ত্রনালয়ের চরম ব্যর্থতার বহি:প্রকাশ ঘটছে।

মঙ্গলবার (১৭ ডিসেম্বর) নয়াপল্টনের যাদু মিয়া মিলনায়তনে ভাষা সৈনিক রওশন আরা বাচ্চু’র ৮৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ ঢাকা মহানগর আয়োজিত স্মরণসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের বীর সেনানী, ভাষা সৈনিক রওশন আরা বাচ্চু আমাদের জাতীয় অহংকার ও প্রেরনার উৎস। যতদিন বাংলাদেশ থাকবে, বাংলাভাষা থাকবে ততদিন বেঁচে থাকবেন ভাষা সৈনিক রওশন আরা বাচ্চু। মহান ভাষা আন্দোলনে তার অবদান সমগ্র জাতি শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে।

তিনি আরো বলেন, মরনের পর নয়, জীবিত থাকতেই সকল ভাষা সৈনিকদের সম্মান জানানো রাষ্ট্রের দায়িত্ব। এ দায়িত্বে রাষ্ট্র ও সরকারের অবহেলা গ্রহনযোগ্য নয়।

ন্যাপ ঢাকা মহানগর সভাপতি মো. শহীদুননবী ডাবলু’র সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন ন্যাপ ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, যুগ্ম মহাসচিব মো. আতিকুর রহমান, এহসানুল হক জসিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল ভুইয়া, মহানগর সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মো. নজরুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক মো. শামিম ভুইয়া, মহিলা সম্পাদিকা সাদিয়া ইসলাম ইমন, শ্রম সম্পাদক হাবিবুর রহমান প্রমুখ।