রাউজানে অজ্ঞ্যাত রোগে ১৭শ ফার্মের মুরগীর মৃত্যু ব্যবসায়ীদের মাথায় হাত

এম বেলাল উদ্দিন, রাউজান
রাউজানে অজ্ঞ্যাত রোগের আক্রমনে গত তিন দিনে প্রায় ১৭শ ফার্মের মুরগী মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। জানা গেছে উপজেলা হলদিয়া ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডস্থ গর্জনীয়া ও কারিগর বাড়ী এলাকায় অবস্থিত বেশ কয়েকটি ফার্মের মুরগী মারা গেছে। একেকটি মুরগীর ওজন ৯শ গ্রাম থেকে সাড়ে ১২শ গ্রাম পর্যন্ত বলে জানা গেছে। গর্জনীয়া সাথী পোল্টি ফার্মের মালিক সৈয়্যদ মুহাম্মদ শাহজাহান জানান,গত তিন দিনে তার ফার্মের প্রায় ৭শ মুরগী মারাগেছে। সে জানায় পাশ্ববর্তী কারিগর বাড়ী এলাকার এনহাজের ৮শ ও আজিজের ২শ মুরগীও অজ্ঞ্যাত রোগে মারা যায়। শাহাজাহান জানান তার মারা যাওয়া প্রতিটি মুরগী ৯শ গ্রাম থেকে সাড়ে ১২শ গ্রাম ওজন ছিল। তার মতে তার প্রতিটি মুরগীতে খড়চ পড়েছিল ১৩০টাকা করে। সে হিসেবে প্রায় ৯১ হাজার টাকা আমার ক্ষতি সধিত হয়েছে। সে হিসেবে অন্য ক্ষতিগ্রস্থ ফার্মেরও একই অবস্থা দাড়িয়েছে। তবে কোন কোন ফার্মের মালিক এই রোগটিকে ব্যকটেরিয়া জনিত সি আর ডি রোগ বলে ধারনা করছে। এই ধরনের হঠাৎ ফার্মের মুরগীর উপর রোগ দেখা দেওয়ায় ফার্মের মালিকরা আতংকিত। অনেক মালিকরা লোন নিয়ে তৈরি করা ফার্মের উপর পরিবারের উপার্জন নির্ভরশীল ব্যক্তিরা হতাশ ও আতংকে পড়েছেন। তবে অন্য একটি সুত্র থেকে জানাগেছে মারা যাওয়া মুরগীগুলো ভাইরাস জনিত কোন রোগে আক্রান্ত হয়নি। এগুলো ব্যকটেরিয়া জনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারে। এদিকে মারা যাওয়া মুরগীর ফার্মের মালিকরা খুব হতাশ হয়ে পড়েছেন। সর্বশেষ গতকাল শুক্রবার বিকালে এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ফার্মের মালিক সৈয়্যদ শাহজাহান জানান এখনো ফার্মে আট-দশটি করে মুরগী কয়েকঘন্টা পর পর মারা যাচ্ছে। তিনি প্রাণী সম্পদ কর্তৃপক্ষের সহয়তা কামানা করেছেন। এদিকে মুরগী মারা যাওয়া সর্ম্পকে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম ভেটরনি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসার ডক্টর মাসুদুজ্জামান জানান মারা যাওয়া মুরগী গুলি পরীক্ষা করে না দেখা পর্যন্ত বলা যাবেনা মুরগীগুলো কি রোগে আক্রান্ত হয়েছে। মারা যাওয়া মুরগী পরীক্ষা করে দেখে এর পর করণীয় সর্ম্পকে বলা যেতে পারে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান কেউ কেউ মুরগীর ফার্ম তৈরি করে থাকেন কিন্তু অনেকে নিয়ম পদ্ধতি অনুস্বরণ করে না বিধায় দুর্ঘটনা হয়ে থাকে। এই ব্যাপারে রাউজান উপজেলার ভেটরনি সার্জেন লেলিন দে জানান তিনি এই ব্যাপারে কোন খবর পাননি। তবে তিনি এই প্রতিবেদক থেকে বিষয়টি জানার পর কোন এলাকায় ফার্মের মুরগী মারা গেছে একটু বললে আমি এক্ষুনি ঐ এলাকায় অফিসের কর্মকর্তা কে দেখে আসার জন্য পাঠাব।

Print Friendly, PDF & Email
 

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

%d bloggers like this: