মোড়েলগঞ্জে আগুনে পাঁচ দোকান ভস্মিভুত, নিহত-১

জেলা রিপোর্টার: বাগেরহাট জেলার মোড়েলগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে অজ্ঞাত একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় সাতটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভষ্মিভূত হয়ে গেছে। মঙ্গলবার ভোর চারটার দিকে মোরেলগঞ্জ উপজেলার সদর বাজারের কাপুড়েপট্টিতে এ ঘটনা ঘটে।

প্রায় চার ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে ফায়ার সার্ভিস আগুন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আনে। বিদ্যুতের সর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত না নাশকতা তা এখনই নিশ্চিত করে বলতে পারেনি প্রশাসন। আগুনে কয়েক কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা দাবী করেছেন। পুলিশ দগ্ধ হয়ে মারা যাওয়া ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে। তবে ওই ব্যক্তির নাম পরিচয় এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ।

মঙ্গলবার সকালে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মো. জাহাংগীর আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

পুড়ে যাওয়া ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে আব্দুস সালাম ব্যাপারী, আব্দুল আউয়াল ব্যাপারী, হাজী রফিকুল ইসলাম ও মিরাজ শেখের ছিট কাপড়, সরোয়ার হোসেন, হাসিবুর রহমান বাচ্চু ও হুমায়ুন তালুকদারের গার্মেন্টস।

মোড়েলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওবায়দুর রহমান বলেন, ভোরে মসজিদে ফজরের নামাজ শেষে মুসল্লিরা বাড়ি ফেরার পথে বাজারের কাপুড়ে পট্টিতে আগুনের লেলিহান শিখা দেখতে পায়। এসময় ওই মুসল্লিরা মসজিদের মাইক থেকে আগুন লাগার ঘোষণা দিলে স্থানীয় লোকজন ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আগুন নেভায়। আগুনে স্থান থেকে অজ্ঞাত একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে ওই ব্যক্তি কিভাবে আগুনে দগ্ধ হয়ে মারা গেছে এবং তার পরিচয় কি তা জানতে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। আগুনে ব্যবসায়ীদের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

মোড়েলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রাশেদুল আলম বলেন, মিরাজ শেখ নামে এক ব্যবসায়ীর পুড়ে যাওয়া দোকান থেকে অজ্ঞাত এক ব্যক্তির দগ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার সারা শরীর এমনভাবে পুড়ে গেছে তা চেনার উপায় নেই। সে এখানে চুরি করতে না আগুন নেভাতে এসেছিল তা জানতে তদন্ত শুরু করেছি। তাই আগুনের সঠিক কারন জানতে সময় লাগবে। তবে লাশের ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
 

0 Comments

Leave a Reply

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

%d bloggers like this: