breaking news New

ব্যবসায়ী জুয়েল হত্যায় সেই নীলাকে জিজ্ঞাসাবাদ

ব্যবসায়ী খায়রুল ইসলাম জুয়েল হত্যা মামলায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের আলোচিত সাবেক কাউন্সিলর জান্নাতুল ফেরদৌস নীলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিআইডি। নীলা আলোচিত সাত খুন মামলার ফাঁসির আসামি সাবেক কাউন্সিলর নূর হোসেনের বান্ধবী।

গত রবিবার বিকালে নারায়ণগঞ্জ আদালত চত্বরে অবস্থিত সিআইডি অফিসে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জেলা সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার ছরোয়ার জাহান। এ মামলায় নীলা জামিনে রয়েছেন।

২০১৩ সালের ২৬ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন আজিবপুর গ্রাম থেকে অজ্ঞাতপরিচয় মাথাবিহীন একটি লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলাও করে।

পরে জানা যায় মরদেহটি নোয়াখালী জেলার মাসুমপুর গ্রামের ফিরোজ খানের ছেলে খায়রুল ইসলাম জুয়েলের। পরবর্তী সময় এ ঘটনায় লঞ্চো সোহেল, কালা সোহাগ ও মনা ডাকাত নামে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর তারা হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দিও দেন।

সেখানে তারা বলেছিলেন, মাদক ব্যবসার দেনা-পাওনা নিয়ে নীলার সঙ্গে জুয়েলের বিরোধ দেখা দেয়। এতে নীলার নির্দেশেই জুয়েলকে গলা কেটে হত্যার পর দেহ এক স্থানে ও মাথা আরেক স্থানে ফেলে দেয় তারা। এ ঘটনায় আদালতে পুলিশের দেওয়া অভিযোগপত্রে নীলাসহ ২৫ জনের নাম ছিল। কিন্তু মামলাটি সিআইডি তদন্ত করতে গিয়ে নীলাসহ ১৭ জনকে অব্যাহতির আবেদন করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। অব্যাহতি চাওয়া ১৭ আসামির মধ্যে ১৩ জনের নাম স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে রয়েছে। সিআইডির অভিযোগপত্রে ২৫ জনের মধ্যে ৮ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। কিন্তু সেখানে অধিকাংশ আসামিকে কেন অব্যাহতির আবেদন করা হয়েছে তার ব্যাখ্যা উল্লেখ করেননি তদন্ত কর্মকর্তা। তাই আদালত এ চার্জশিটটি স্পষ্ট নয় উল্লেখ করে মামলা অধিকতর তদন্তের জন্য সিআইডিকে নির্দেশ দেন। এর পরিপ্রেক্ষিতেই নীলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিআইডি।

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register