পাটের মোড়ক ব্যবহারে ১৫ মে থেকে বিশেষ অভিযান

১৭টি পণ্যে পাটের মোড়ক ব্যবহারে ১৫ মে থেকে আবারো দেশব্যাপী বিশেষ অভিযানের কথা জানিয়েছেন বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম।

রোববার সচিবালয়ে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয়ের এক সভায় তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ধান, চাল, গম, ভুট্টা, সার ও চিনিসহ ১৭টি পণ্য সংরক্ষণ ও পরিবহনে পাটের বস্তার সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করতে আমরা আবারো বিশেষ অভিযান শুরু করছি।

তিনি বলেন, ১৫ মে থেকে অভিযান শুরু হবে। পরবর্তী তারিখ না বলা পর্যন্ত অভিযান অব্যাহত থাকবে।

‘কারাদণ্ড, অর্থদণ্ড, ব্যাংক ঋণ সুবিধা বন্ধ, লাইসেন্স বাতিল, আইআরসি বা ইআরসি বাতিলের বিধান রেখে ‘পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন, ২০১০ বাস্তবায়নে এবার আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে আরো কঠোর হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে’- জানান প্রতিমন্ত্রী।

তিনি আরো বলেন, ‘এবার বিশেষ অভিযানে কারাদণ্ড, অর্থদণ্ড- এ দুটি দণ্ডের ওপর অধিক গুরুত্ব দেওয়া হবে। যদিও ধান, চাল, গম, ভুট্টা, সার ও চিনি সংরক্ষণ ও পরিবহনে দেশের বিভাগ, জেলা, উপজেলা, থানা পর্যায়ে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা অব্যাহত রয়েছে।’

বিশেষ অভিযানে সার্বিক তদারকির জন্য দেশের সব বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সভায় বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. ফয়জুর রহমান চৌধুরী, অতিরিক্ত সচিব গোপাল কৃষ্ণ ভট্টাচার্য,  পাট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোছলেহ উদ্দিন, বিজেএমসির চেয়ারম্যান ড. মো. মাহমুদুল হাসানসহ বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, কৃষি মন্ত্রণালয়, শিল্প মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ জুট অ্যাসোসিয়েশন (বিজেএমএ) এর প্রতিনিধি এবং বিভিন্ন স্টোক হোল্ডাররা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন-২০১০ এর সুষ্ঠু বাস্তবায়ন পর্যালোচনা, ভবিষ্যৎ করণীয় নির্ধারণ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট স্টোক হোল্ডারদের নিয়ে এ সভার আয়োজন করা হয়।

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register