breaking news New

নিজের বুকের দুধ খাইয়ে পরিত্যক্ত শিশুকে বাঁচালেন পুলিশকর্মী

রেলস্টেশনে পড়ে আছে দুই মাসের কন্যাশিশু। ক্ষুধার যন্ত্রণায় কান্নাও করছে। এমন খবরে দ্রুত স্টেশনে ছুটে যান প্রিয়াঙ্কা নামে পুলিশের এক কনস্টেবল। শিশুটিকে কোলে নিয়ে মায়ের মমতায় নিজের বুকের দুধও খাওয়ালেন।

ভারতের একটি সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, দক্ষিণ ভারতের রাজ্য তেলেঙ্গায় ঘটনাটি ঘটেছে।

প্রিয়াঙ্কা জানিয়েছেন, রোববার রাতে তার স্বামী রবিন্দর তাকে ফোন করে থানায় যেতে বলেন। রবিন্দর নিজেও একজন পুলিশ কর্মী। আফজলগঞ্জ পুলিশ স্টেশনে কন্সটেবলের চাকরি করেন তিনিও। সেখান থেকেই প্রিয়াঙ্কাকে ফোন করেন রবিন্দর। সে সময় প্রিয়াঙ্কা বাড়িতে ছিলেন। স্বামীর ফোন পেয়ে দ্রুত স্টেশনে যান তিনি। সেখানেই জানতে পারেন, এক-দুই মাসের শিশুকে খুঁজে পাওয়া গিয়েছে। কিন্তু তার বাবা-মার খোঁজ মিলছে না।

প্রিয়াঙ্কার জানান, ক্ষুধার যন্ত্রণায় ছটফট করা শিশুটিকে তখন বুকে জড়িয়ে নেন তিনি। নিজেও এক সন্তানের মা হওয়ায়, শিশু কন্যাটির ক্ষুধার কথা বুঝতে পারেন। বুকে জড়িয়ে নিয়ে ওই শিশুটিকে দুধ পান করান তিনি। তার পরেই ঘুমিয়ে পড়ে শিশুটি।

পরে শিশুটির মা-কে খুঁজে পান পুলিশকর্মীরা। শিশুটিকে তার মায়ের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

হায়দরাবাদ পুলিশের কর্তারা প্রিয়াঙ্কা ও রবিন্দরের এমন পদক্ষেপে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। পুলিশ কমিশনারের পক্ষ থেকে ওই দম্পতিকে পুরস্কারও দেওয়া হয়েছে।

এর আগে ২০১৮ সালের আগস্ট মাসে আর্জেন্টিনায় এক পরিত্যক্ত শিশুকে দুধ পান করিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লাখ লাখ মানুষের সুনামে পঞ্চমুখ হয়েছিলেন এক নারী পুলিশ অফিসার। আর ২০১৯ সালের প্রথম দিন নজির হয়ে থাকলেন ভারতের এই নারী পুলিশকর্মী।

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register