breaking news New

তিন গ্রেডে পোশাক শ্রমিকদের মজুরি সমন্বয়ের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

পোশাক শ্রমিকদের মজুরি কাঠামো সমন্বয়ের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গার্মেন্টস শিল্পে মজুরি নিয়ে শ্রমিকদের ক্ষোভের কারণে উদ্ভূত বিশৃঙ্খল পরিস্থিতিতে সরকার শ্রমিকদের জন্য ঘোষিত মজুরির যেসব গ্রেডে বেতন আশানুরূপ বাড়েনি সেই গ্রেডগুলোর মধ্যে সমন্বয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মজুরি কাঠামো নিয়ে চলমান অসন্তোষ, আন্দোলন, সংঘর্ষের প্রেক্ষাপটে প্রধানমন্ত্রী এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

রোববার শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মুন্নুজান সুফিয়ান প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী সমন্বিত মজুরি কাঠামোর ঘোষণা দেন।

সূত্র জানায়, দেশের অর্থনীতির প্রাণশক্তি গার্মেন্ট শিল্প এবং এ খাতের শ্রমিকদের স্বার্থ সংরক্ষণের বিষয় বিবেচনায় সরকার দ্রুত ত্রিপক্ষীয় মজুরি কমিটি গঠন করে। সংশ্লিষ্ট সব পক্ষের মতের ভিত্তিতে এবং শ্রমিকদের স্বার্থে ৩, ৪ ও ৫ নম্বর গ্রেডে মজুরি সমন্বয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।

এদিকে সোমবার (১৪ জানুয়ারি) থেকে শ্রমিকরা কারখানায় এসে কাজে যোগ না দিলে কোনও মজুরি দেয়া হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ তৈরি পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ)।
রোববার দুপুরে পোশাক শিল্পে উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান সংগঠনের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান।

উল্লেখ্য, সরকারি মজুরি কাঠামো বৃদ্ধি ও বাস্তবায়নের দাবিতে গত বেশ কয়েকদিন ধরেই কাজ বন্ধ রেখে আন্দোলন চালিয়ে আসছেন পোশাক শ্রমিকরা। এতে পোশাক শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ছাড়া সড়ক বন্ধ রেখে আন্দোলন, বাস ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও শ্রমিক আহতের ঘটনা ঘটে।

এর আগে গেল বছর মালিক-শ্রমিক পক্ষের সঙ্গে কথা বলে পোশাক খাতে সর্বনিম্ন ৮ হাজার টাকা মজুরি চূড়ান্তের সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে ২০১৯ সালের জানুয়ারি থেকে এ মজুরি কার্যকর হওয়ার কথা ছিল। আর এ মজুরি কার্যকর নিয়ে শ্রমিকরা আন্দোলন করে।

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register