breaking news New

ডেঙ্গুর মত এমন জাতীয় সংকটের দিনে নেই স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীঃ রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার রাজধানীর মহাখালীতে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির সামনে থেকে ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনসচেতনতামূলকর্ যালি বের করা হয় -যাযাদি
ডেঙ্গু আশঙ্কায় ঢাকাসহ সারাদেশের মানুষের মধ্যে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে উলেস্নখ করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, প্রতিদিনই অসংখ্য মানুষ ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এর মধ্যে কারও কারও প্রাণহানিও ঘটছে। অথচ এই সংকট মোকাবিলায় সরকারের যথাযথ কোনো উদ্যোগ নেই।
বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর মহাখালীতে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির সামনে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির উদ্যোগে ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনসচেতনতামূলকর্ যালিতে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।
রিজভী বলেন, ভয়াবহ দুঃশাসনে জর্জরিত মানুষের ভোট চুরি করে ক্ষমতাসীন হওয়ার জন্য জনগণ বর্তমান সরকারকে ঘৃণা করে বলেই তারা জনগণকে শত্রম্ন মনে করে। জনগণের কাছে সরকারের কোনো জবাবদিহিতা নেই। রাষ্ট্রক্ষমতার জন্য বর্তমান শাসকগোষ্ঠী জনগণকে প্রয়োজন মনে করে না। সেজন্য দেশের যেকোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় অবহেলা ও অবজ্ঞা করে থাকে।
ডেঙ্গুর মতো এত বড় জাতীয় সংকটে সরকারের কোনো দায়বদ্ধতা নেই দাবি করে তিনি বলেন, সেজন্য প্রধানমন্ত্রী এখন বিদেশে অবস্থান করছেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিদেশে চলে যান। আওয়ামী সরকারের রাজনীতি জনকল্যাণমুখী নয়ই বরং জনগণকে চরম দুর্ভোগের মধ্যে ফেলাই এদের রাজনীতির লক্ষ্য। তাই প্রাকৃতিক দুর্যোগে আওয়ামী মন্ত্রী-নেতাদের বাগাড়ম্বর বক্তব্য দেয়া ছাড়া সমস্যা সমাধানে কোনো কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করে না।
বিএনপি শুধু মিটিং-মিছিলের রাজনীতি করে না দাবি করে রিজভী বলেন, ঝড় জলোচ্ছ্বাস-বন্যাসহ সংক্রামক ব্যাধিজনিত মহামারি মোকাবিলা করতেও জনগণের পাশে থাকে বিএনপি।
তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মিথ্যা ও সাজানো মামলায় সরকার অন্যায়ভাবে কারারুদ্ধ করে রেখেছে। বুধবার (৩১ জুলাই) গোটা দেশবাসী অধীর ও ব্যাকুল হয়ে সর্বোচ্চ আদালতের দিকে তাকিয়ে ছিল, সবাই আশা করেছিল জুলুম ও অন্যায়ের প্রতিকারের শেষ আশ্রয়স্থল উচ্চতর আদালত সরকারের সাজানো মিথ্যা মামলায় কারারুদ্ধ দেশনেত্রীকে জামিন দেবেন। কিন্তু গোটা দেশবাসীকে হতাশ করে ৭৪ বছর বয়সী চরম অসুস্থ সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ করে দেয়া হয়েছে। এই রায় নিয়ে দেশের জনগণের সঙ্গে আমরাও হতাশ এবং উদ্বিগ্ন।
র্
যালিতে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আহসান উলস্নাহ হাসান, যুগ্ম সম্পাদক এজিএম শামসুল হক, সাইফুর রহমান মিহির, দপ্তর সম্পাদক এবিএমএ রাজ্জাক, বনানী থানা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি মিজানুর রহমান মিজান, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পাদক ইমান হোসেন নূর, তুরাগ থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশীদ, বাড্ডা থানা বিএনপির সভাপতি তাজুল ইসলামসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register