ঝিনাইদহের মান্ধাতা আমলের নির্মিত বিদ্যুতের পোল বাঁশ ও গাছে বিদ্যুতের তার: সংস্কার না করায় প্রাণহানীর আশংকা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ঝিনাইদহঃ
ঝিনাইদহের শৈলকুপার উপজেলার মধুপুর গ্রামে মান্ধাতার আমলের নির্মিত বিদ্যুতের পোল সংস্কার না করায় দুঘর্টনার আশংকা করছে গ্রামবাসী। এ গ্রামে বিদ্যুতের সংযোগ রয়েছে প্রায় ২৫০ টি পরিবারের মধ্যে। নব্বইয়ের দশকে এ গ্রামে বিদ্যুতের সংযোগ দেয়ার সময় ব্যবহার করা হয় কাঠ ও কংক্রিটের পোল। তবে দীর্ঘদিন অতিবাহিত হওয়ায় অধিকাংশ পোলই জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। ইতিমধ্যে ভেঙে গেছে অনেকগুলো পোল। এ অবস্থায় বর্তমানে বাঁশ ও গাছকে পোল হিসেবে ব্যবহার করে বিদ্যুতের সংযোগ চালু রাখা হয়েছে। গ্রামবাসীরা জানান, কোথাও কোথাও বিদ্যুতের তার টিনের ঘরের চাল ও বাড়ির ওপর দিয়ে গেছে। তারগুলোও বেশ পুরনো। পোল না থাকায় ঝুলে পড়া এসব তারে বিদ্যুতায়িত হয়ে যেকোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে তারা আশংকা করছে। গ্রামবাসীরা আরো বলেন, বাড়ির ভেতরে ভেঙে যাওয়া পোলের মাধ্যমে বিদ্যুতের সংযোগ দেওয়া হয়েছে। চলাফেরা করতে গেলে বিদ্যুতের তার মাথায় ঠেকে যায়। বিশেষ করে শিশুদের নিয়ে সবসময়ই দুশ্চিন্তার মধ্যে থাকে অভিবাবকরা। এ অবস্থায় নতুন পোল ও বিদ্যুতের তারের মাধ্যমে বিদ্যুতের সংযোগ দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করা হয়েছে। ওজোপাডিকো শৈলকুপার আবাসিক প্রকৌশলী শামীম শরিফ বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, পৌরসভার মধ্যে আগে কাজ করার নির্দেশনা রয়েছে। এ কাজ শেষ হলেই আমরা দ্রুত ওই গ্রামের বিদ্যুতের পোল ও তার সংস্কারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব। এ ব্যাপারে শৈলকুপা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উসমান গনি বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে আমরা অবহিত। দ্রুত যাতে এ সমস্যার সমাধান হয়, সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register