breaking news New

জাতীয় সংসদের পুনঃনির্বাচনের দাবি সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির

নিজস্ব প্রতিবেদক
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ফল বাতিল করে পুনঃনির্বাচনের দাবি জানিয়েছে সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতি। এক্ষেত্রে পাশ্ববর্তী দেশের ন্যায় এদেশের সর্বোচ্চ আালতের সুয়োমটো (স্বতঃস্ফূর্ত) হস্তক্ষেপ কামনা করেছে সমিতি।

আজ বুধবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতি আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সমিতির সভাপতি ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন এই দাবি জানান।

তবে নির্বাচন বাতিলে সুপ্রিম কোর্টকে ব্যবহার করার জন্য সমিতি যে দাবি করেছেন তা বে-আইনি ও অসাংবিধানিক বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের আইন সম্পাক অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম।

সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেন, ‘যে নির্বাচন হয়েছে সেটি জাতি গ্রহণ করেনি। অতীতে আমাদের পাশ্ববর্তী দেশে এসব ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ আদালত থেকে হস্তক্ষেপ করে। যে নির্বাচন হয়েছে তা বাতিলের জন্য সংবিধানের অভিভাবক হিসেবে দেশের সর্বোচ্চ আদালত থেকে সুয়োমটো হস্তক্ষেপ কামনা করছি। আশা করবো প্রধান বিচারপতিসহ অন্য বিচারপতিরা এক্ষেত্রে তাদের সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করবেন।’

জয়নুল আবেদীন আরও বলেন, ‘নানা আশঙ্কার পরও প্রধানমন্ত্রী ও নির্বাচন কমিশনের আশ্বাসের পর ঐক্যফ্রন্টের নেতারা নির্বাচনে অংশ নেয়। নির্বাচনে প্রার্থী বাছাইয়ের পরে অনেক প্রার্থীকে গ্রেপ্তার করা হয়, অনেকের ওপর হামলা চালানো হয়, নির্বাচনী প্রচারে বাধার সৃষ্টি করা হয়। আমাদের সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার খোকনের ওপর গুলি চালানো হয়। এই নির্বাচনকে নির্বাচন বলা যায় না। এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সারা দেশে হাজার হাজার নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে। সরকারকে অনুরোধ করবো এসব মামলা যেন প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।’

তিনি হাইকোর্টের কিছু বিচারপতিকে পদত্যাগের আহ্বান জানিয়ে বলেন, যখন নির্বাচন কমিশন কোন প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র বৈধ ঘোষণা করে তখন অতীতে হাইকোর্ট থেকে হস্তক্ষেপের কোনো নজির দেখিনি। কিন্তু এবার হাইকোর্ট থেকে অনেক প্রার্থীর প্রার্থীতা স্থগিত করা হয়েছে। সব বিচারপতিকে বলবো না, তবে যারা এগুলো করেছে তারা হাইকোর্টকে জনগণের কাছে হেয়প্রতিপন্ন করেছে। এটা করে তারা শপথ লংঘন করেছে। শপথ ছিলো ভয়-ভীতির উপরে থেকে আইন অনুযায়ী বিচার করবো, কিন্তু মনে হয়েছে ভয়-ভীতির কাছে নত হয়ে তারা এসব কাজ করেছেন। যারা এসব কাজ করেছেন সেসব বিচারপতিকে পদত্যাগের আহ্বান জানাই।

সুপ্রিমকোর্টে সমিতির মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এই সংবাদ সম্মেলনে সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, সহ-সভাপতি মো: গোলাম রহমান ভুঁইয়া, কোষাধক্ষ্য নাসরিন আক্তার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অপর দিকে সমিতির এই সংবাদ সম্মেলনের পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন বাতিলে সুপ্রিম কোর্টকে ব্যবহার করার জন্য যে দাবি করা হচ্ছে তা বেআইনি ও অসাংবিধানিক বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শ.ম রেজাউল করিম।

নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, ‘একাদশ সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও অংশগ্রহনমূলক হয়েছে। বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধানরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। বিএনপি অতীতে সেনাবাহিনীকে বিভিন্নভাবে আমন্ত্রণ করে দেশের গণতান্ত্রিক রাজনীতি ধ্বংসের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছেন। এখন নির্বাচন বাতিলে সুপ্রিম কোর্টকে ব্যবহার করার জন্য উনারা যে দাবি করেছেন তা বেআইনি ও অসাংবিধানিক।’

রেজাউল করিম বলেন, ‘সংসদ নির্বাচন নিয়ে কারো কোনো অভিযোগ থাকলে তিনি আইনানুগভাবে ট্রাইব্যুনালের আশ্রয় নিতে পারেন। কিন্তু সেখানে না গিয়ে সুপ্রিম কোর্টকে বিতর্কিত করার জন্য তাদের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির কাজ এটা নয়। বিএনপির নেতৃত্ব কোথায়? এ জাতীয় প্রেস কনফারেন্স জনগণ প্রত্যাখান করবে।’

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register